Sharing is caring!

অবশেষে ফেসবুকের সাহায্যে গ্রেফতার

৩টি দেশীয় অস্ত্রসহ যুবক

♦ শিবগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশ্যে রাস্তায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিষয়ে পুলিশকে অভিযোগ দেয়ার ৪ দিন পর ছবি ফেসবুকে শেয়ার করায় গ্রেফতার হয়েছে অভিযুক্ত সেই হাসুয়াহাতে ধাওয়াকারী যুবক। অস্ত্রধারী সেই ব্যক্তি জেলার শিবগঞ্জ পৌর এলাকার সেলিমাবাদ খানপাড়ার ফাইজুদ্দিন খানের ছেলে আজরুল খান। এসময় পুলিশ ১টি রামদা ও ২টি হাসুয়া জব্দ করে। ঘটনাটি জেলার শিবগঞ্জ পৌর এলাকার পাইলিং মোড়ে ১ জুলাই ঘটলেও ৪ জুলাই রাতে ফেসবুকে সে ছবি আপলোড করার পর শুক্রবার দুপুরে গ্রেফতার হয় সেই দেশীয় অস্ত্রধারী যুবক। চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার টি.এম মোজহিদুল ইসলাম বিপিএম-পিপিএম ফেসবুকে ঘটনাটি দেখে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিলে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয় আজরুল। ভুক্তভোগী ব্যাক্তি শাহজাহান আলী সাজা জানান, জমির আইল সীমানা নিয়ে বিরোধের জেরে তার পিতা হেদায়েত আলী শেখের সাথে একই এলাকার আজরুল খানের বিরোধ চলে আসছিল দীর্ঘদিন ধরে। এরই জেরে শাহজাহান আলী সাজা শিবগঞ্জ পৌরসভায় একটি অভিযোগ দিলে পৌর সালিশ বোর্ড ১ জুলাই সোমবার উভয় পক্ষকে লিখিতভাবে সালিশে হাজির হবার নিদের্শ দেয়। পৌরসভার আদেশটি পাওয়ার পর আজরুল উত্তেজিত হয়ে দেশিয় অস্ত্র হাসুয়া নিয়ে মহাসড়কের পাইলিং মোড়ে অভিযোগকারী ও তার পরিবারকে ধাওয়া করে। বিষয়টি স্থানীয়দের মাধ্যমে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। সাজার দাবী, শিবগঞ্জ থানার এস.আই সিরাজের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ এবং ৩ জুলাই এ সংক্রান্ত একটি জিডি করার পরও শিবগঞ্জ থানা কোন ব্যবস্থা নেয়নি। অবস্থা বেগতিক দেখে তিনি ৪ জুলাই রাতে সেদিনের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপারকে ট্যাগ করে আপলোড করেন। ফুটেজ আপলোডের পরদিন শুক্রবার দুপুরে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ অভিযুক্ত আজরুলকে গ্রেফতার করে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার টি.এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম-পিপিএম জানান, তিনি প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী কার্যক্রমের একটি ছবি ফেসবুকে দেখে স্বপ্রণোদিত হয়ে অস্ত্রধারীকে দ্রুত গ্রেফতারের নির্দেশ দেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *