Sharing is caring!

আইনমন্ত্রীকে নিয়ে স্ট্যাটাস দেয়ায় যুবকের

বিরুদ্ধে ডিজিটাল মামলা

♦ দর্পণ ডেস্ক

আইনমন্ত্রী আনিসুল হককে ‘খলনায়ক’ বলে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় মো. মাঈন উদ্দিন সরকার (২২) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

কসবা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ইব্রাহিম মিয়া বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেছেন। মামলার আসামি মাঈন উদ্দিন সরকার কসবা উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের কায়েমপুর গ্রামের ইয়াকুব আলী সরকারের ছেলে।

গতকাল রোববার (০৭ জুন) মামলাটি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নথিভুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কসবা থানা পুলিশের ওসি মো. লোকমান হোসেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, ‘হক কথা তিতা লাগে’ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে গত ৪ জুন সন্ধ্যা ৭টা ২৭ মিনিটে আইনমন্ত্রী আনিসুল হককে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস দেয়া হয়। ওই ফেসবুক স্ট্যাটাসে আইনমন্ত্রীকে ‘ভোটারবিহীন এমপি’ উল্লেখ করে গুজব ছড়ানো হয়। অভিযুক্ত মাঈন উদ্দিন সরকার ‘হক কথা তিতা লাগে’ ফেসবুক আইডি খুলে এমন স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

ভাইরাল হওয়া ওই পোস্টের মাধ্যমে এলাকা, দেশ ও বহির্বিশ্বে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের মানহানি করা হয়েছে বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়। এর ফলে স্থানীয়দের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ নিয়ে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার শঙ্কার কথাও উল্লেখ করা হয় মামলার এজাহারে।

মামলার বাদী ও কসবা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মো. ইব্রাহিম মিয়া বলেন, জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে আনিসুল হক এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি নিরলসভাবে মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। ফেসবুকে মিথ্যা ও বানোয়াট পোস্ট দিয়ে মন্ত্রীর সম্মানহানি করে মানুষের কাছে হেয় করা হয়েছে। এতে আমি ক্ষুব্ধ হয়েছি। এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচার চাই।

কসবা থানা পুলিশের ওসি মো. লোকমান হোসেন বলেন, ইতোমধ্যে মামলার তদন্ত কাজ শুরু হয়েছে। অভিযুক্ত মাঈন উদ্দিন সরকারকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *