Sharing is caring!

আওতা বাড়লো মেট্রোরেলের

যানজটে অতিষ্ঠ নগরবাসীর জন্য আরেকটি সুখবর। উত্তরা থেকে মতিঝিল নয়, কমলাপুর পর্যন্ত যাচ্ছে মেট্রোরেল। যানজট নিরসনে সবচেয়ে আশার প্রকল্প এটি। সরকারের অগ্রাধিকার প্রকল্পের বিবেচনায় তা এখন নগরজুড়ে দৃশ্যমান। প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, নগরবাসীর চলাচলে স্বস্তি নিশ্চিত করতে আরেকটি চমকপ্রদ প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। সেটি হলো উত্তরা থেকে কমলাপুর পর্যন্ত পাতাল রেল নির্মাণ। যা যুক্ত হবে মেট্রোরেলের সঙ্গে। কর্তৃপক্ষ বলছে, প্রায় ২১ কিলোমিটার দৈর্ঘের এ প্রকল্পের উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত অগ্রগতি হয়েছে ৪৬ শতাংশ। চলতি মাসেই শুরু হচ্ছে এর বৈদ্যুতিক কাজ, নভেম্বরে বসবে চীন থেকে আসা রেললাইন। ইতোমধ্যে উত্তরাসহ বিভিন্ন অংশে শুরু হয়েছে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজ। দিয়াবাড়ি এলাকায় ডিপো ও ভূমি উন্নয়নের কাজ শতভাগ সম্পন্ন হয়েছে। উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত ১১ দশমিক তিন সাত কিলোমিটার ভায়াডাক্ট এ স্টেশন নির্মাণের কাজ সম্পন্ন হয়েছে ৫৫ শতাংশ।

এতেই দৃশ্যমান হয়েছে স্বপ্নের এ প্রকল্প। ইলেকট্রিক্যাল ও মেকানিক্যাল কাজ হয়েছে ১৬ দশমিক পাঁচ শূন্য শতাংশ। তবে রেললাইন, কোচ ও ডিপো ইকুইপমেন্ট সংগ্রহের কাজ শেষ হয়েছে মাত্র ১৫ দশমিক দশ ভাগ। এ বিষয়ে মেট্রোরেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন সিদ্দিক জানিয়েছেন, আশা করি প্রকল্প মেয়াদের এক বছর ছয় মাস আগে আমরা কাজ শেষ করতে পারব। ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে মেট্রোরেল প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে।

মেট্রোরেল প্রকল্প বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান ‘ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডে’র (ডিএমটিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন সিদ্দিক জানান, উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত মেট্রোরেলের অগ্রগতি হয়েছে ৪৬ শতাংশ। এরই মধ্যে চীন থেকে রেললাইন এসে পৌঁছেছে। এসেছে লাইন বসানোর মেশিনও। নভেম্বর থেকে শুরু হবে রেললাইন বসানোর কাজ। তিনি আরো জানিয়েছেন, প্রকল্পের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে এমআরটি নকশাতে কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে। উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত প্রকল্পটি শেষ হওয়ার কথা ছিল। তা বাড়িয়ে কমলাপুর পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

প্রকল্পের তথ্যানুযায়ী, উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত মোট ১৭টি স্টেশন থাকবে। উত্তরার দিয়াবাড়িতে হবে মেট্রোরেলের প্রথম স্টেশন। যার নাম হবে উত্তরা নর্থ। পর্যায়ক্রমে এর পরের স্টেশনগুলো হবে- উত্তরা সেন্টার, উত্তরা দক্ষিণ, পল্লবী, মিরপুর-১১, মিরপুর-১০, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া, আগারগাঁও, বিজয় সরণি, ফার্মগেট, কাওরান বাজার, শাহবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, সচিবালয়, মতিঝিল ও কমলাপুর। প্রকল্পের শুরুতে ১৬টি স্টেশন নির্ধারণ করা হলেও পরিধি বাড়ায় একটি স্টেশন যুক্ত করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *