Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলের আদিবাসী শ্রীমতি কমেলা রানীর দায়ের করা মামলা থেকে খালাস পেয়েছেন জেলার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক তরিকুল ইসলাম (টি. ইসলাম) সহ অন্য আসামীরা। খালাস প্রাপ্তরা হলো-নােেমাশংকরবাটি সরকারপাড়ার মৃত তোফাজ্জুল হোসেনের ছেলে মো. তরিকুল ইসলাম (টি. ইসলাম), আমনুরা টংপাড়ার মোঃ আনারুল ইসলামের ছেলে আব্দুল খালেক (হাবু) ও মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম। গত ০৫-১১-১৭ইং তারিখ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রট (ক-অঞ্চল) বিচারক মোঃ শরিফুল ইসলাম সি.আর ৪২৭/২০১৭(নবাবগঞ্জ) মামলাটি পর্যালোচনা করে ওই মামলাটি খারিজ করে অভিযুক্ত আসামীদের খালাস দেন। মামলা সুত্র ও থানা পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদনে জানা গেছে, গত ২ জুন ২০১৭ তারিখ শ্রীমতি কমলা রানী বাদি হয়ে তরিকুল ইসলাম (টি.ইসলাম), আব্দুল খালেক ও জাহাঙ্গীর আলমের উপর বাড়ি ঘর ভাংচুর, হামলা, নির্যাতন ও বাড়ির আসবাবপত্রের ক্ষতির অভিযোগ এনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ আমলী আদালত (ক) অঞ্চল এ মামলা দায়ের করে। সদর থানা পুলিশ বিষয়টি সরজমিন তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করে। তদন্তকারী সদর মডেল থানা পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আতিকুল ইসলাম তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দাখিল করে উল্লেখ করেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বাদী ও আসামীদের মধ্যে বিরোধ রয়েছে এবং ওই বিষয়ে দেওয়ানী আদালতে একাধিক মোকাদ্দমা চলমান রয়েছে। তদন্তে অভিযোগে উল্লেখিত ঘটনার কোন সত্যতা পাওয়া যাইনি। জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বাদি মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মামলা করেছেন। তদন্তকারী কর্মকর্তার দাখিলকৃত তদন্ত প্রতিবেদন গ্রহণের পর পর্যালোচনা করে আদালতের বিচারক মামলাটি ফৌজদারী কার্যবিধির ২০৩ ধারা মতে খারিজ করে দেন। উল্লেখ্য, কয়েকমাস আগেও আদিবাসীদের দায়ের করা একটি মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা থেকে খালাস পেয়েছেন তরিকুল ইসলাম (টি.ইসলাম)।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *