Sharing is caring!

ccI0QOuVJoTMলেবু যেমন খেতে দারুণ। তেমনি এর রয়েছে অনেক গুণ। ত্বকের যত্নে লেবুর উপকারিতা বলে শেষ করা যায়না। শুধু ত্বক নয়, চুলের সৌন্দর্য বজায় রাখতে ও নখের যত্ন নিতে লেবুর কোনো বিকল্প নেই। চলুন জেনে নেই এক লেবুর কত গুণ- অনেকের নাকের পাশে দেখা যায় অবাঞ্চিত লোম। বাজারে প্রচলিত অনেক প্রোডাক্ট ব্যবহার করেও এই সমস্যা থেকে রক্ষা পাওয়া যায়না। লেবুর রস এক্ষেত্রে চিরস্থায়ী সমধান নিয়ে আসতে পারে।একদিন পর পর তুলো লেবুর রসে ভিজিয়ে নাকের চারপাশে ঘষলে এই লোমগুলো চলে যাবে। যাদের ত্বক শুষ্ক তারা প্রায় অনেক মশ্চরাইজার ব্যবহার করেও খুব একটা উপকার পাননি। সেক্ষেত্রে এখনি রান্না ঘরে চলে যান। লেবু ও মধু দিয়ে তৈরি করে ফেলুন পেস্ট। মুখ,হাত, পায়ে লাগিয়ে রাখুন ৫ মিনিট। পেস্ট বেশি ঘন হয়ে গেলে এর সঙ্গে কয়েক ফোঁটা পানি দিতে পারেন। ঠান্ডা পানি দিয়ে ধোঁয়ার পর দেখবেন ত্বক হয়ে আছে মসৃণ আর কোমল।QBYE1V4UsfERত্বকে রোদে পোড়া কালো দাগ দূর করতে লেবুর রসের সঙ্গে ডাবের পানি মিশিয়ে ত্বকে মুখে লাগালে ১ সপ্তাহের মধ্যে চলে যাবে রোদে পোড়া কালচে দাগ। কথার বলার সময় মুখ সবার আগে চোখে পড়ে। তাই সবাই আর কিছু না হোক কম বেশি মুখের যত্ন নিয়ে থাকে। কিন্তু এর মধ্যে ভুলেই যায় হাতের কনুই,পায়ের গোড়ালির কথা। যাও খুব একটা চোখ এড়ায়না কারো। রোজ গোসলের আগে কিছুক্ষণ এসব স্থানে লেবু ঘষলে খুব দ্রুত কালো দাগ ও খসখসে ভাব দূর হয়ে যায়। যারা নিয়মিত রান্না করেন প্রায়ই দেখা যায় তাদের হাতের নখে একটা হলদেটে দাগ পড়ে গেছে। লেবুর রসের সঙ্গে ক্যাস্টর বা অলিভ ওয়েলের মিশিয়ে ২০ মিনিট নখে লাগিয়ে রাখলে আর কখনোই ফিরে আসবেনা এই হলদেটে দাগ। খুসকির সমস্যায় ভোগে না এমন খুব কম মানুষই আছে। আর হাজারো অ্যান্টি ডেনড্রাফ্ট শ্যাম্পু ব্যবহার করেও এর চিরস্থায়ী সমাধান কেউই পাননা। সপ্তাহে ৩ দিন চুলের গোড়ায় লেবু ঘষলে ১০ দিনের মধ্যেই পাবেন এর চিরস্থায়ী সমধান। অনেকের ওপরের ঠোঁটে কালচে ভাব থাকে।এক্ষেত্রে চিনি ও লেবুর রস এক সঙ্গে মিশিয়ে ঠোঁটে ১০ মিনিট মেখে রাখলে নিজেই দেখবেন এর উপকারিতা

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *