Sharing is caring!

এরশাদের স্বাক্ষর ও জাতীয় পার্টির প্যাড

ব্যবহার করে মিথ্যাচার ছড়াচ্ছে কুচক্রী মহল

নিউজ ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুবিধাজনক অবস্থানে না থাকায় আওয়ামী লীগ সমর্থিত মহাজোটে নানা রকমের বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে একটি মহল। জাতীয় পার্টির একটি প্রেস ব্রিফিংয়ে মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়ে প্রকাশ করে সাধারণ ভোটারদের মাঝে দ্বন্দ্ব সৃষ্টির পাঁয়তায়ায় নেমেছে মহলটি।

জানা গেছে, ২৭ ডিসেম্বর নির্বাচনের প্রাক্কালে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের স্বাক্ষর নকল করে লাঙল প্রতীকের প্রার্থীদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার না করার মিথ্যা আহ্বান করা হয়েছে। অথচ বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং বিভ্রান্তিকর বলে জানা গেছে।

বিভিন্ন সূত্রের খবরে জানা গেছে, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থীদের জনপ্রিয়তা এবং সম্ভাব্য বিজয়ে ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি বিশেষ রাজনৈতিক জোটের প্ররোচনায় পড়ে এরশাদের নাম ব্যবহার করে জাতীয় পার্টির দলীয় প্যাডে মনগড়া মিথ্যা সাজিয়ে লিখে মুক্তিযুদ্ধ ও মহাজোটের পক্ষের সমর্থকদের বিভ্রান্ত করে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বিনষ্ট করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। এদিকে জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে এরশাদের বিশেষ সহকারী ও দলটির সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার বিভ্রান্তি এবং মিথ্যাচারের বিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

এই বিষয়ে জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব ও এরশাদের বিশেষ সহকারী রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, একটি বৃহত্তর রাজনৈতিক জোট অনৈতিক সুবিধা আদায় করার জন্য এরশাদ স্যারের স্বাক্ষর নকল করে জাতীয় পার্টির প্যাডে মনগড়া এবং অযৌক্তিক সব তথ্য দিয়ে প্রেস রিলিজ ছাপিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। হাস্যকর বিষয় হলো, মিথ্যায় ভরা সেই প্রেস রিলিজে দাবি করা হয়েছে এরশাদ নাকি জাতীয় পার্টির প্রার্থীদের নির্বাচন থেকে না সরার আহ্বান জানিয়েছেন এবং নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার অনুরোধ করেছেন। কিন্তু আসল সত্য হলো, এরশাদ স্যার আজ সকালেও গণমাধ্যমের মাধ্যমে মহাজোটের সমর্থন পাওয়া জাতীয় পার্টির সদস্য ছাড়া লাঙ্গল প্রতীকে এককভাবে অংশগ্রহণ করতে যাওয়া জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পাওয়া সদস্যদের নির্বাচন থেকে সরে আসার আদেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি শুধু প্রার্থিতা প্রত্যাহার নয় বরং মহাজোট সমর্থিত প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করারও আহ্বান জানিয়েছেন এরশাদ। এরশাদের নামে পাঠানো প্রেস রিলিজটি যে ভুয়া সেটি প্রমাণ করে প্রেস রিলিজটির নিচে জাতীয় পার্টির বানান ভুল করে ‘জাতীয় পার্টি’ হিসেবে লেখা হয়েছে। আমি এরশাদ স্যারের পক্ষে মহাজোটের নেতা-কর্মীদের ভুয়া প্রেস রিলিজে বিশ্বাস করে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। মহাজোট ঐক্যবদ্ধ থাকলে কেউ বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতে পারবে না।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *