Sharing is caring!

Exif_JPEG_420

নাচোল প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে কমিউটার ট্রেনে যাত্রী সংখ্যা বাড়লেও বাড়েনি আসন সংখ্যা। এ ট্রেনে নাচোলের জন্য বরাদ্দকৃত আসন সংখ্যা ২০ থেকে বাড়িয়ে ৬০ আসনে উন্নীত করনের দাবী বিশিষ্টজনদের ও সাধারণ মানুষের। জানা গেছে, রহনপুর থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহী গামী আন্তঃনগর কমিউটার ট্রেনটি সপ্তাহে মঙ্গলবার যাত্রা বিরতী থাকলেও অন্যদিন গুলোতে ট্রেনের সিডিউল মেনে নির্ধারীত সময়ে গন্তব্যস্থলে পৌছে থাকে। কিন্তু সড়কপথে বাস বা অন্য পরিবহনে যাতায়াতের ক্ষেত্রে যাত্রীদের যে পরিমাণ সময় ও অর্থ অপচয় করে জীবনের ঝুকি নিয়ে ভ্রমন করতে হয়। সেক্ষেত্রে এ ট্রেনে চলাচল তুলনামুলকভাবে নিরাপদ মাধ্যম হিসেবে যাত্রীদের কাছে গুরুত্বপুর্ন হয়ে উঠেছে। এছাড়া এ উপজেলাধীন নেজামপুর ও গোলাবাড়ি রেলস্টেশনে কমিউটার ট্রেনের যাত্রা বিরতী না থাকায় ভোগান্তিতে পড়ছে এ অঞ্চলের মানুষ। এদিকে উপজেলা সদরের প্রানকেন্দ্রে খুব কাছাকাছি অবস্থানে নাচোল রেল রেলস্টেশনটির অবস্থান হওয়ায় অফিস-আদালতের চাকরীজীবি, রোগী, ব্যাবসায়ী স¤প্রদায়সহ উপজেলার সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের নিকট একমাত্র উপজীব্য হয়ে দাড়িয়েছে এ ট্রেন ও এ ষ্টেশনটি। ষ্টেশন সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা যায়, কমিউটার ট্রেনে টিকিট বিক্রির গড় পরিসংখ্যান অনুযায়ী নাচোল রেল ষ্টেশন থেকে প্রতিদিন ৬৪ জন যাত্রী টিকিট কেটে ভ্রমন করেন। কিন্তু আসন সংখ্যা সীমিত হওয়ায় দাড়িয়েই যাত্রা করতে হচ্ছে এসব মানুষকে। সংশ্লিষ্ট অপর এক সুত্র মতে, এ ষ্টেশন থেকে কমিউটার ট্রেনের জন্য সীমিত আসন বরাদ্দ থাকায় ষ্টেশনে কর্মরতদের অনেক সময় বিভিন্ন অজুহাতে যাত্রীদের মুখোমুখি হতে হয়। গত ১২ই নভেম্বর বিকেলে রহনপুর থেকে ফিরতি এ ট্রেনের অগ্রীম টিকিট বিক্রি করা ও কাউন্টার খোলার পর আসন বিহীন টিকিট বিক্রি করার প্রতিবাদে লাইনে দাড়ানো যাত্রীদের মাঝে এক উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এব্যাপারে কর্তব্যরত ষ্টেশন মাষ্টার আহসান আলী জানান, সপ্তাহের শেষ দিন বৃহস্পতিবার হওয়ায় উপজেলার বিভিন্ন অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অগ্রীম টিকিট সংগ্রহ করার কারনে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এমতাবস্তায় প্রতিনিয়ত এ যাত্রী দুর্ভোগ কমানো ও রেলের আয় বৃদ্ধির লক্ষ্যে ট্রেনটিতে বগি সংযোজন করে নাচোলে ২০ আসন থেকে বাড়িয়ে ৬০ আসন বরাদ্দের জন্য উর্ধ্বতন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবী জানিয়েছেন নাচোলবাসী।

Exif_JPEG_420

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *