Sharing is caring!

কমিশন বাণিজ্যের নতুন বিতর্কে ভিপি নুর,

ফাঁস হলো নতুন অডিও!

নিউজ ডেস্ক: সাধারণ ছাত্রদের অধিকার রক্ষা, অন্যায়-দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে নিজের শক্ত অবস্থানের বিষয়ে প্রচার করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নির্বাচিত হন নুরুল হক নুর। কিন্তু ভিপি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই কখনো ক্ষমতার অপব্যবহার, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি আবার কখনো কমিশন বাণিজ্য করে অবৈধ অর্থ আয় করার মাধ্যমে নতুন নতুন বিতর্কে জড়াচ্ছেন ভিপি নুর।এবার নিজ জন্মস্থান পটুয়াখালী জেলার গলাচিপায় ৮ কোটি টাকার উন্নয়নমূলক সরকারি কাজের ১০ পারসেন্ট কমিশন চাওয়া, কথিত আন্টির দেয়া কমিশনের টাকায় বিলাসবহুল গাড়ি কেনা এবং ছাত্র হয়েও ১ লাখ ২০ হাজার টাকায় রাজধানী শহরে ফ্ল্যাট ভাড়া নেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে জনৈক ব্যক্তির সাথে ফোনালাপ ফাঁস হওয়ায় নতুন করে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন নুর। বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) বেসরকারি টেলিভিশন নিউজ ২৪ এ প্রচারিত এই অডিও কলে গলাচিপায় স্থানীয় উন্নয়ন কাজে কমিশন বাণিজ্য, গাড়ি কেনা ও বাসাবাড়ি ভাড়া নেয়ার মতো উচ্চাভিলাষী অনিয়মের বিষয়গুলো উঠে এসেছে ভিপি নুরের কথোপকথনে।

অডিও-কলে ভিপি নুর গলাচিপার জনৈক ব্যক্তির সাথে স্থানীয় উন্নয়ন কাজের বরাদ্দ ও লাভের বিষয়ে খোঁজ-খবর নেন। পাশাপাশি লাভের ১০ পারসেন্ট কমিশন দেয়ার জন্য জনৈক ব্যক্তিকে অনুরোধ করেন ভিপি নুর। এসময় তিনি তার হাতের দুরবস্থার কথা বিবেচনা করে জনৈক ব্যক্তিকে দ্রুত টাকা হস্তান্তরের বিষয়েও অনুরোধ করেন। এছাড়া ফাঁস হওয়ায় অডিও-কলে ভিপি নুর তার কথিত আন্টির ব্যবসা-বাণিজ্য দেখভালের নামে পাওয়া তথা কমিশন হিসেবে পাওয়া ৬৮ লাখ টাকা দিয়ে বিলাসবহুল একটি গাড়ি কেনার জন্যও দ্বিতীয় এক ব্যক্তির সাথে আলাপ করেন। পাশাপাশি তিনি গাড়ির দরদাম ঠিক করার জন্য ফোনের ওপাশে থাকা ব্যক্তিকে নির্দেশনাও দেন। এছাড়াও ভিপি নুর রাজধানীর ঢাকার সুবিধাজনক একটি এলাকায় আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন ফ্ল্যাট ভাড়া নেয়ার বিষয়েও একজনের সাথে আলাপ করেন। ১ লাখ ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত বাড়ি ভাড়া দিতেও রাজি হন ভিপি নুর। এসময় বাড়িভাড়ার অর্থ নিয়ে ফোনের ওপাশে থাকা ব্যক্তিকে কোনো ধরণের দুশ্চিন্তা না করতেও পরামর্শ দিয়েছেন ভিপি নুর।

এদিকে ভিপি নুরের অনৈতিক কমিশন বাণিজ্য, টেন্ডারবাজি ও দুর্নীতির কথোপকথন নতুন করে ফাঁস হওয়ায় খোদ বিব্রত হয়ে পড়েছেন ভিপি নুরের গঠন করা কথিত সংগঠন সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতৃবৃন্দ। যে নুর অতীতে চিকিৎসা করার জন্য ভিটেমাটি বিক্রির কথা বলেছিলেন, সেই ভিপি নুর ক্ষমতা পেয়ে দুর্নীতিবাজ ও কমিশন বাণিজ্যে জড়িয়ে তার পদেরও অমর্যাদা করছেন বলেও মনে করছেন তারা।

উল্লেখ্য, গত ৩ ডিসেম্বর ভিপি নুরকে জনৈক এক প্রকল্প কর্মকর্তার কাছে তদবির এবং প্রবাসী এক বাংলাদেশির সঙ্গে টেলিফোনে টাকা লেনদেনের বিষয়ে কথা বলতে শোনা গেছে। পরবর্তীতে ফাঁস হওয়া সেই অডিওটি নিজের বলেও স্বীকার করে নেন নুর।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *