Sharing is caring!

করোনা ভাইরাস নিয়ে অপপ্রচার \ কথিত সাংবাদিক

একাধিক মামলার আসামী রুবেল গ্রেফতার

♦ স্টাফ রিপোর্টার

করোনা ভাইরাস নিয়ে ফেসবুকে মিথ্যা অপপ্রচার ও গুজব ছড়ানোর অভিযোগে চাঁপাইনবাবগঞ্জে রুবেল নামে একজন কথিত সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। কথিত এই সাংবাদিক হত্যা, মাদকসহ ৩টি মামলা আসামী। কথিত এসব সাংবাদিক নামধারীদের জন্য প্রকৃত সাংবাদিকদের সম্মানহানী হচ্ছে। এসব কথিত সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে দ্রæত প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা একান্ত জরুরী হয়ে পড়েছে। অন্যথায় সাংবাদিকতার মত মহান পেশা কলঙ্কিত হচ্ছে। গ্রেফতারকৃত রুবেল চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার কল্যাণপুরের মো. কালুর ছেলে। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের এস.আই আবু আব্দুল্লাহ জাহিদ পিপিএম কথিত সাংবাদিক রুবেল গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এস.এম রুবেল নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে করোনা ভাইরাস নিয়ে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করা হয়। বিষয়টি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজরে আসলে রুবেলের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে বৃহস্পতিবারর রাতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক গণমাধ্যম সংস্থা ব্রিটিশ ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (বিবিসি বাংলা) সাদৃশ্য সংবাদ মাধ্যমের লোগো সম্বলিত বুম ও ব্যাগ উদ্ধার করা হয়। তার কাছে আজকের বসুন্ধরা পত্রিকার আইডি কার্ডও পাওয়া যায়। রুবেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গন্ডি পার না হলেও, সে নিজেকে এইচ.এস.সি পাশ বলে পরিচয় দেয়। ভাবখানা এমন যেন, বিশাল বড় মাপের একজন সাংবাদিক সে। তিনি আরো জানান, এর আগেও তার বিরুদ্ধে হত্যা, মাদকসহ তিনটি মামলা রয়েছে। এঘটনায় তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করে শুক্রবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অনুসন্ধানে জানা গেছে, করোনা ভাইরাস নিয়ে ফেসবুকে মিথ্যা অপপ্রচার ও গুজব ছড়ানোর দায়ে আটক রুবেল হত্যা ও মাদকসহ একাধিক মামলা থেকে জামিনে বেরিয়ে কিছুদিন আগেও আদালতে মহরিল হিসেবে কাজ করতো। হঠাৎ করেই নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় চাঁদাবাজিসহ বø্যাকমেলিং করা শুরু করে। এছাড়াও প্রতিবেদন প্রকাশ করে হয়রানীতে ফেলাসহ মানুষকে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার মত গুরুত্বর অসংখ্য অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এনিয়ে স্থানীয় সাংবাদিকরা ছিল চরম বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে। পরিবার সূত্রে জানা গেছে রুবেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গন্ডি পেরোইনি। যেসব গণমাধ্যম তাদের নুন্যতম যোগ্যতা যাচাই না করে সাংবাদিকতার কার্ড দিচ্ছেন, এসব অপসাংবাদিকতা রোধে যাচাই-বাছায় করে কার্ড দেয়ারও আহ্বান জানান জেলার প্রবীন ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। জেলায় আরো অনেক সাংবাদিক নামধারীরা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে, এখনই নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে কলঙ্কিত হবে সাংবাদিকতার মত মহান পেশা বলেও দাবী প্রকৃত সাংবাদিক মহলের।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *