Sharing is caring!

কারিগরি শিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা ২০১৯: প্রশ্নপত্র

ফাঁস রোধে অব্যাহত আছে নজরদারি

নিউজ ডেস্ক: দেশের শিক্ষা ও পরীক্ষা ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে বর্তমান সরকার। এর ফলে প্রশ্নপত্র ফাঁসের মতো ভয়াবহতা থেকে রক্ষা পাচ্ছে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা। ২০১৯ সালের কারিগরি শিক্ষা বোর্ড পরীক্ষায় একই তৎপরতা অব্যাহত থাকায় এ নিয়ে সন্তুষ্ট অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। অভিভাবকরা বলছেন, মেধানির্ভর জাতি গঠনে এর ভূমিকা অতুলনীয়।শিক্ষা সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রতিটি বোর্ড পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে সরকার যে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে তা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবি রাখে। এরই মধ্যে সরকারের গৃহীত ব্যবস্থায় সুফল পাচ্ছে শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা। এবার কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নির্বিঘ্ন-নির্ঝঞ্ঝাট করতে সরকারের এমন পদক্ষেপ যুগান্তকারী বলে মনে করছেন শিক্ষা সংশ্লিষ্টরা।

সরকারের নির্দেশ মোতাবেক পরীক্ষার শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সকলেই সজাগ রয়েছেন। সরকারের সদিচ্ছা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিশেষ উদ্যোগে এরই মধ্যে সারা দেশ থেকে প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের একাধিক সদস্যদের আটক করা হয়েছে। এর ফলে বিগত সময়ের বিভিন্ন বোর্ড পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে শতভাগ সফল হয়েছে সরকার।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২৫ জুন হতে শুরু হওয়া কারিগরি শিক্ষা বোর্ড পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে কড়া নজরদারিতে এখন পর্যন্ত কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। প্রশ্নপত্র ফাঁসের মতো অপতৎপরতা রোধে কাজ করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তারা মাঠ পর্যায়েও কাজ করছে বলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্রে জানা গেছে।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের সার্বিক পদক্ষেপ সম্পর্কে বোর্ডের একজন কর্মকর্তা বলেন, যেহেতু মেধাবীদের সঠিক মূল্যায়নই আগামী জাতি গঠনে সহায়ক হবে তাই আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি সম্পূর্ণ প্রশ্নপত্র ফাঁস মুক্ত এবং নকল মুক্ত পরিবেশে বোর্ড পরীক্ষা সম্পন্ন করার। যেহেতু এটি ব্যবহারিক শিক্ষা তাই এতে প্রশ্ন ফাঁস ও নকলের মতো অপতৎপরতা যেকোনো মূল্যে রুখে দিতে যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। এই শিক্ষার্থীরাই শিক্ষা জীবন শেষ করে আগামীতে উন্নত জাতি গঠন করবে। তাদের মধ্যে যদি কেউ অসদুপায় অবলম্বন করে তবে তার কাছ থেকে জাতি উপকৃত হবে না। সুতরাং এ জায়গায় সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখা আমাদের দায়িত্ব।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *