Sharing is caring!

গরুর খামার করে স্বাবলম্বী হতে চান রহনপুরের সেফাজুল

♦গোমস্তাপুর প্রতিনিধি 

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর পৌর এলাকার মাস্টার পাড়ার সেফাজুল ইসলাম গরুর খামার করতে সরকারী সহায়তা চেয়েছেন। বর্তমানে তার বাড়িতে ২টি বিক্রয়যোগ্য গরু রয়েছে। এর মধ্যে ১টি গাভী তিনি ৩ বছর আগে দেড় লক্ষ টাকায় ক্রয় করেন। বর্তমানে তার ওজন আনুমানিক ৩শত ৫০ কেজি, বাজার মূল্য ধরা হয়েছে আড়াই লক্ষ টাকা। গাভীটি অস্ট্রেলিয়ান ফিজিয়াম জাতের। অপরটি অস্ট্রেলিয়ান জার্সি ষাঁড়। এটি বাড়ির পোষা। ষাড়টির ওজন প্রায় ৪শত ৫০ কেজি, বাজার মূল্য আনুমানিক ৬ লক্ষ টাকা। এই ২টি গোরুর পিছনে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৬ শত টাকা খরচ করতে হয় সেফাজুলকে। গাভীটি বর্তমানে গর্ভবতী, তবে এটি ২০/২৫ কেজি করে দুধ দেয়। সেফাজুল জানান, ১৯৯৮ সালের প্রলয়ংকারী বন্যার ছোবল এবং পরবর্তীতে দালালদের খপ্পরে পড়ে লিবিয়া গমন করে সর্বশান্ত হন তিনি। পরে আত্বীয়-স্বজন ও এনজিও থেকে লোন নিয়ে গরু পালন শুরু করেন। তার খুব শখ গোরুর খামার করা। এজন্য তিনি সরকারের সহায়তা কামনা করেছেন। অল্প সুদে সরকারী ব্যাংক অথবা কোন সংস্থা থেকে বড় অংকের লোন পেলে গরুর খামার গড়তে তার সুবিধা হবে। সরকারী-বেসরকারীবাবে সহযোগিতা পেলে একটি সুন্দর খামার গড়ে তুলে নিজে স্বাবলম্বী হতে পারবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন সেফাজুল ইসলাম।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *