Sharing is caring!

গোদাগাড়ীতে অবৈধভাবে রাস্তার

গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ

♦ গোদাগাড়ী প্রতিনিধি

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার ভাটোপাড়া এলাকায়  অবৈধভাবে রাস্তার গাছ গাটার অভিযোগ উঠেছে। গোদাগাড়ীর সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, আনুমানিক ১০ অক্টোবর দিয়াড় মহাব্বতপুর গ্রামের মৃত কায়েম উদ্দিনের ছেলে ইসমাইল হোসেন (২৮) (চর বয়ারমারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাইটগার্ড কাম পিয়ন), হরিশংকরপুর গ্রামের মৃত মহিউদ্দিনের ছেলে হিটলার (৪০) তারা শীর্ষ নেতাদের মদদে কিছু লেবার নিয়ে ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থান থেকে ৩০-৩৫ বছরের প্রায় ১৫টি বড় বড় রাস্তার গাছ অবৈধভাবে কর্তন করে নিয়ে যায়। তারা গাছ কাটতে গেলে স্থানীদের তোপের মুখে পড়ে, তারপরেও তাদের গালিগালাজসহ বিভিন্নভাবে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে গাছগুলো কেটে নিয়ে চলে যায়। এব্যাপারে প্রত্যক্ষদর্শী ৬নং ওয়ার্ডের মৃত নূরুল ইসলামের ছেলে কবির হোসেন, শাহজাহান আলীর ছেলে তামিম হোসেন, মৃত বাসেদুর রহমানের ছেলে নাসিম হোসেন জানান, দুস্কৃতিকারীরা গাছগুলো কেটে নিয়ে চলে গেছে। তারা বাধা নিষেধ করতে গেলে তাদেরকে গালাগালি করে। এছাড়াও ৫নং ওয়ার্ডের নাইস এবং এম.এম ৪ নামক ভাটার কর্মচারীরা গাছ কর্তন করাসহ গাছগুলো বহন করে নিয়ে যেতে দেখেছেন বলে জানা যায়। ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার হরিশংকরপুর গ্রামের গাছ নিধনকারী হিটলারের ভাই টকেন মেম্বারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, গাছ কাটার কথা আমাকে কিছু বলেনি, পরে জানতে পেরেছি তারা কিছু গাছ কেটেছে। যারা গাছ কেটেছে, তার মধ্যে হিটলার আমার ভাই বলে স্বীকার করেন। গাছগুলো তারা কি করেছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন কিছু কাজে লাগিয়েছে আর কিছু লয়ছয় করেছে। এব্যাপারে হিটলারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি গাছ কাটার কথা স্বীকার করে বলেন মেম্বার, ইউপি চেয়্যারম্যান ও উপজেলা চেয়্যারম্যানকে বলে ডাঁড়ার কপাটের জন্য ৩/৪টি গাছ কেটেছি। মাটিকাটা ইউনিয়নের চেয়্যারম্যান আলী আজম তৌহিদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি একজন চেয়্যারম্যান, আমি নিজেও একটি ডাল কাটার জন্য এখন পর্যন্ত সাহস করতে পারিনি, হরিশংপুরে কতিপয় ছেলে যারা নেতা দাবী করে, তারা নিজেদের গায়ের জোরে কিছু গাট কেটেছে, তবে গাছ কাটার আগে আমাকে ফোনে বলেছিল, আমি গাছ গাটার অনুমতি দিইনি।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *