Sharing is caring!

গোদাগাড়ী প্রতিনিধি \ রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে প্রধান ডাকঘর ভবনের বেহাল দশা হওয়ায় গ্রাহক সেবা হুমকির মুখে পড়েছে।  গোদাগাড়ীর প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত ডাকঘরটি সংর¶নের অভাবে ভবন ঝুকিপূর্ণ হওয়ায় প্রতিদিন গ্রাহকরা নানা বিপদের সম্মুখিন হচ্ছেন। ডাকঘর ঘুরে দেখা যায়, উপজেলা ডাকঘরটির মূল ভবন ১০ (২০০৬) পূর্বে নির্মিত হলেও এখন সেখানে সঠিক সেবা দেয়া প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়েছে। ভবনের কোথাও রং নেই, আবার কোথাও প্লাষ্টার খসে খসে পড়ছে, ভবনের পুরো ছাদ প্লাষ্টার খসে পড়ে ছাদের রড গুলো দেখা যাচ্ছে। ২০১৪ জুন মাসের ১৫ তারিখে ছাদ হতে সিলিং ফ্যান খুলে পড়লে চার জন গ্রাহক গুরুত্বর আহত হয়। আহত হওয়ার ফলে রাজশাহী বিভাগীয় অফিসের কয়েকজন কর্মকর্তা ভবন পরিদর্শন করেন। ভবন এবং ভবনের ফ্যান গুলো ঝুকিপূর্ণ হওয়ায় খুলে ফেরার নিদের্শ দেন। তার পর দুই বছর অতিক্রান্ত হলেও এখন পর্যন্ত কোন পদ¶েপ গ্রহণ করা হয়নি। ফলে গ্রাহকরা সেবা নিতে গিয়ে ভয় ভীতির মধ্য থেকে সেবা নিয়ে কোন রকমে বাইরে অবস্থান করে। আবার অনেককে দেখা গেছে ভবনের বাইরে থেকে সেবা গ্রহণ করছে। সঞ্চয়ী হিসাব গ্রাহক মোঃ আওয়াল বলেন, পোষ্ট ভবনের অবস্থান করলে সব সময় ভয় ভয় লাগে। কখন হয়তো ছাদ খুলে পড়বে। কোন রকমে সেবা নিয়ে বাইরে আসতে উদ্যত হই। তিনি আরো বলেন, ভবনটি দ্রুত মেরামত করে গ্রাহক সেবা উন্নত করার দাবি জানায়। পোষ্ট আফিস সূত্রে জানা যায়, গোদাগাড়ী প্রধান ডাকঘরে নিয়মিত ডাকসেবা ছাড়াও ১২টির মত সেবা প্রদান করা হয়। সেবাগুলো হলো, পরিবার সঞ্চয় পত্র, পেনশনার সঞয় পত্র, ৫ বছর মেয়াদী বাংলাদেশ সঞ্চয়, ৩ মাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক সঞ্চয় পত্র, ওয়েজ অনার ডেভেলপমেন্ট বন্ড, ইউ.এস ডলার প্রিমিয়াম বন্ড,  ইউ.এস ডলার ইনভেষ্টমেন্ট বন্ড, বাংলাদেশ প্রাইজ বন্ড, ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক, ডাক জীবন বীমা এছাড়াও প্রতিদিন এখানে মোবাইল মানি অর্ডারে ৫ থেকে ৭ল¶ টাকা লেনদেন হয় । এই সার্ভিস গুলো সেবা প্রদান করার জন্য পোষ্ট মাষ্টার সহ ১১জন জনবল  রয়েছে। পোষ্ট অফিসের কর্মরত নাজমা জানান, সেবা কেন্দ্রে কোন ফ্যান না থাকায় ও ভবন ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অফিসে কাজ করতে হচ্ছে। এ বিষয়ে প্রধান ডাকঘরের পোষ্ট মাষ্টার বলেন, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন অফিস করতে হচ্ছে। অফিসটির মেরামতের জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপ¶কে কয়েক দফা আবেদন করা হলেও এখন পর্যন্ত কোন সুরাহা হয়নি। ভবিষতে হবে কিনা এরকম কোন আশাও দেখছি না। তবে আমরা আমাদের সামার্থ দিয়ে গ্রাহক সেবা প্রদান করে যাচ্ছি।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *