Sharing is caring!

গ্রামে ২৯ রকমের ঔষধ এখন বিনামূল্যে

দিচ্ছে সরকার

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সাড়ে ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা এখন নিভৃত গ্রামে পৌঁছে গেছে। কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোতে এখন ২৯ রকমের জরুরি ওষুধ ফ্রি করে দেয়া হয়েছে। গ্রামীণ খেটে খাওয়া মানুষজন এই ২৯ রকমের ওষুধ বিনামূল্যে নিতে ও ব্যবহার করতে পারছে।

রোববার (১২ জানুয়ারি) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় আয়োজিত বাংলাদেশের কৈশোর স্বাস্থ্য কৌশলপত্র ২০১৭-২০৩০ এর জাতীয় কর্মপরিকল্পনার উদ্বোধনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব কথা বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আগত কিশোর-কিশোরীদের উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, আজকের যে কৌশলপত্র উদ্বোধন করা হলো এর ফলে ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের সকল কিশোর-কিশোরী বিশেষ করে যারা সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ, তারা সামাজিকভাবে নিরাপদ ও সুস্থ্য এবং সুন্দর একটি জীবন পাবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী তার বক্তব্যে কিশোর-কিশোরীদের অনাকাঙ্ক্ষিত স্বাস্থ্যহানী না ঘটাতে স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপনের পরামর্শ দেন ও ধুমপান বা মাদক থেকে সর্বদা দূরে থাকার পরামর্শ দেন।

পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আ খ ম কাজী মহিউল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত মি. হ্যারি ভেরুইজ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি ড. বর্ধন জন রানা, ইউএনএফপিএ এর প্রতিনিধি ড. আশা টর্কেলসন, ইউনিসেফ এর উপ-প্রতিনিধি ভীরা মনডংকা, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের লাইন ডিরেক্টর শামসুল ইসলাম সহ প্রমুখ ।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *