Sharing is caring!

chapai-1চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত ও সাধারণ সদস্যদের সংবর্ধণা দেয়া হয়েছে। বুধবার দুপুরে সদর আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদের উদ্যোগে এই সংবর্ধণা দেয়া হয়। সদর উপজেলার দক্ষিন শহরের সাংসদের নিজস্ব পার্কে সংবর্ধণা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মঈনুদ্দিন মন্ডল, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ, সাবেক সাংসদ জিয়াউর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব রুহুল আমিন, আওয়ামীলীগ নেতা ডাঃ শামিল উদ্দিন শিমুল ও কামাল উদ্দিন, শিবগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র কারিবুল হক রাজিন, প্রবীন সাংবাদিক তসলিমউদ্দিন, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হুদা অলকসহ অন্যরা। নির্বাচিতদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাসদ নেতা আলহাজ্ব রফিকুল ইসলাম, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য হালিমা খাতুন প্রমুখ। শেষে নবনির্বাচিতদের ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়। বক্তারা জেলার উন্নয়নে সকলকে একসাথে কাজ করার আহবান জানান। জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মঈনুদ্দিন মন্ডল বলেন, জেলার উন্নয়নে সকলে অতীত ভেদাভেদ ভুলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে। জেলা পরিষদের উদ্যোগে জেলার সকল ইউনিয়নে সম উন্নয়ন করা হবে। তিনি বলেন, সাংবাদিক বন্ধুগণ আওয়ামীলীগের সমালোচনা না করে আলোচনা করুন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করুন, দেশকে ভালবাসুন, উন্নয়ন ভালবেসে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশের উন্নয়নে এগিয়ে আসুন। সংবর্ধণা সভায় জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর আসনের সাংসদ আব্দুল ওদুদ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সকলের পিতা, সকল বাঙ্গালীর পিতা। তাঁর আদর্শ মেনেই দেশ গঠনে সকলকে কাজ করতে হবে। একসময় দল মত নির্বিশেষে জয় বাংলা শ্লোগানে সকলে একত্রে স্বাধীনতার জন্য কাজ করেছে। এটি কোন দলের শ্লোগান নয়, এটি দেশের সকলের শ্লোগান। জাতির পিতাকে নির্মমভাবে হত্যার পরই বিভাজন সৃষ্টি হয় দেশে। নির্বাচন বিষয়ে তিনি বলেন, জেলার সিনিয়র নেতৃবৃন্দসহ সকল নেতা-কর্মীদের প্রচেষ্টায় জেলা পরিষদের নির্বাচনে বিজয় এসেছে। দেশকে সোনার বাংলা গড়ে তুলতে সকলে মিলে কাজ করতে হবে। আওয়ামীলীগে জেলার বিএনপি ও জামায়াতের নেতা-কর্মীরা যোগদান করে জেলার উন্নয়নের অংশ নিতে চায়। এজন্য দলের কিছু নেতা-কর্মী বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। সেসব নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে হুশিয়ারী দিয়ে তিনি বলেন, এখনও সময় আছে, সঠিক পথে ফিরে আসুন, দলের পতাকাতলে থেকে দলকে আরও সংগঠিত করুন, অন্যথায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। দলের নেতা-কর্মী আওয়ামীলীগে যোগদান করায় বিএনপি ও জামায়াতের নেতৃবৃন্দের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি জোর দিয়ে বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে জামায়াত বলে কোন দল থাকবে না। জামায়াত-বিএনপি দলের কার্যক্রম ভেঙ্গে আওয়ামীলীগকে শক্তিশালী করা হবে। জেলার উন্নয়নে এবং আওয়ামীলীগ সরকারকে আবারও ক্ষমতায় বসাতে সকলে এক হয়ে কাজ করবো। নির্বাচন আসলেই দলের নেতা-কর্মীদের মনোবল দূর্বল করতে আব্দুল ওদুদ এমপির অসুস্থতার কথা বলে প্রচারণা চালানো হয়, এটিও একটি ষড়যন্ত্র। কোন ষড়যন্ত্রই কাজে আসবে না। তিনি সাংবাদিকদের বিষয়ে বলেন, সাংবাদিকগণ আমাদের শত্রু নয়, আমরাও তাদের শত্রু নই। তিনি বলেন, জেলার উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরে জেলার সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য এগিয়ে আসুন, জেলার ক্ষতি হয় এমন কাজ করবেন না। বস্তনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করুন এবং বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ প্রচার থেকে বিরত থাকুন। অন্যথায় আইনগতসহ সকল ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *