Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জের রাবেয়া জুট মিলে

আগুনে বিপুল পরিমান ক্ষয়ক্ষতি

♦ স্টাফ রিপোর্টার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের আমনুরা এলাকার রাবেয়া জুট মিলে আগুন লেগে বিপুল পরিমান ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বুধবার দিবাগত রাত আনুমানিক ৯টার দিকে এই অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত হয়। তবে কিভাবে আগুনের সুত্রপাত বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আগুন নিয়ন্ত্রণে রাতেই চাঁপাইনবাবগঞ্জ, গোমস্তাপুর, গোদাগাড়ী, রাজশাহীসহ ফায়ার সার্ভিসের প্রায় ৫টি ইউনিট প্রায় ৪ ঘন্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু আগুনে ভষ্মিভূত হয় রাবেয়া জুট মিলের অনেক পণ্য। অগ্নিকান্ডে জুট মিলের বিপুল পরিমান পাটের তৈরি বস্তা, সুতলি ও মেশিনপত্র ভস্মিভুত হয়েছে। ক্ষতির পরিমান ৬০ থেকে ৭০ কোটি টাকা বলে জানিয়েছেন মিল মালিক মো. রফিকুল ইসলাম। রাজশাহী ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার ফরহাদ হোসেন জানান, খবর পেয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা চালায়। পরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর ও রাজশাহী থেকে ফায়ার সার্ভিসের আরো চারটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রনে যোগ দেয়। আগুনের সুত্রপাত কিভাবে এবং কি পরিমান ক্ষতি হয়েছে তা তদন্ত করে বলা যাবে। বৃহস্পতিবার সকালেও কাজ করছিল ফায়ার সার্ভিসের দল। রাবেয়া জুট মিলের মালিক রফিকুল ইসলাম জানান, বুধবার রাত সোয়া ৯টার দিকে হঠাৎ করে জুটের ইউনিটে আগুন ধরে যায়। এসময় সেখানে থাকা কর্মচারীরা কারখানা তড়িঘড়ি করে বেরিয়ে যায়। মুহুর্তেই অগ্নিকাণ্ড ভয়াবহ আকার ধারণ করে এবং চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা চালায়। পরে অবস্থা ভয়াবহ আকার ধারণ করলে চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর ও পাশ^বর্তী রাজশাহী থেকে ফায়ার সার্ভিসের আরো চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে হাজ করে। রাত ১ টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে ফায়ার সার্ভিস দল। এদিকে, বৃহস্পতিবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রিজ এর সভাপতি ও এরফান গ্রæপের চেয়ারম্যান মো. এরফান আলীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল ভয়াবহ এই অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ রাবেয়া জুট মিল পরিদর্শন করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *