Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে অবৈধ বালু-মাটি উত্তোলনের দায়ে মেশিন-সরঞ্জাম জব্দ ॥ পুড়িয়ে ধ্বংস

♦ মো. নাদিম হোসেন (স্টাফ রিপোর্টার)

পদ্মা ও মহানন্দায় অবৈধভাবে বালু ও মাটি উত্তোলনের অপরাধে বিপুল পরিমাণ বালু, মেশিন, সরঞ্জাম জব্দ ও এক্সাভেটার (মাটি কাটার যন্ত্র) পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে।

বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে জেলা প্রশাসন। দুপুরে মহানন্দা নদীতে সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নের পলশা-চকঝগড়ু ঘাট এলাকায় ৪টি বিশাল বালুর স্তুপ, ৩টি বালু তোলার ড্রেজার মেশিন ও বালুবাহী কার্গো জব্দ করা হয়। জেলা প্রশাসনের দেয়া ইজারাকৃত বালু মহলের সীমানার বাইরে গিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে এসব জব্দ করা হয়। এসময় বালু পয়েন্ট, ড্রেজার মেশিন ও কর্গোতে লাল পতাকা দিয়ে সবধরনের স্থানান্তরে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। জব্দ হওয়া মালমাল ও সরঞ্জাম নিলামে তোলা হবে বলেও জানানো হয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে। এর আগে বালুমহলটির ইজারাদার বাদল আলীর বিরুদ্ধে সীমানার বাইরে গিয়ে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের বিষয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়।

এদিকে, বিকেলে সদর উপজেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নের শিবিরের হাট এলাকায় ৭নং বাঁধে পদ্মা নদী হতে অবৈধভাবে বালু ও মাটি কাটার অপরাধে একটি এক্সাভেটার (মাটি কাটার মেশিন) মেশিন আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। এছাড়াও আরো একটি এক্সাভেটার মেশিন জব্দ করে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় উপস্থিত ছিলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মেহেদী হাসান, সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আমিনুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রবিন মিয়া,

মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম, পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. ময়েজ উদ্দিনসহ পুলিশ ও র‌্যাবের সদস্যরা। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রবিন মিয়া জানান, অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও মাটি কাটার দায়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহায়তায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এসব মেশিন ও সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যেই এসব নিলামে তোলা হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *