Sharing is caring!


চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার আতাহার জুগিডাইং গ্রামের আদিবাসী গৃহবধু সান্তনা হাসদাকে (৩০) নিজ বাড়ী থেকে অপহরণ করে পাশের একটি আমবাগানে জোর করে ধর্ষণের অপরাধে আরিফুল ইসলাম (৩২) ও মো. জিয়ারুল (৩৪) নামে ২ জন যুবককে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেছেন আদালত। দেড় লক্ষ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে তিন বছর করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয় আসামীদের। জরিমানার টাকা সান্তনা হাসদা প্রাপ্ত হবেন বলেও রায়ে উল্লেখ করেন বিচারক। রবিবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ট্রাইবুনাল-২ এর বিচারক মো. জিয়াউর রহমান আসামীদের উপস্থিতিতে এই দন্ডাদেশ প্রদান করেন। দুই শিশু সন্তানের জননী নির্যাতিতা আদিবাসী গৃহবধু শ্রীমতি সান্তনা হাসদা সদর উপজেলার জুগিডাইং গ্রামের বাবলু মুরমুর (৪২) স্ত্রী এবং অভিযুক্ত সাজাপ্রাপ্ত আরিফুল ইসলাম একই উপজেলার আতাহার মোড়ের দেলশাদ কটা ও মো. জিয়ারুল আন্ধানিডাঙ্গা গ্রামের মো. মোস্তফা ওরফে কানজেল এর ছেলে। এজাহার সুত্রে ও মামলায় সরকার পক্ষের কৌসুলী আঞ্জুমান আরা জানান, গত ২৯/১১/১৪ তারিখ রাতে সান্তনা নিজ ঘরে দুই শিশু সন্তান নিয়ে ঘুমিয়ে থাকার সময় অভিযুক্তরা জোর করে ঘরে প্রবেশ করে। জোর করে সান্তনাকে প্রায় ১ কিলোমিটার দুরের একটি আমবাগানে নিয়ে যায়। সেখানে আরিফুল তাঁকে জোর করে ধর্ষন করে। জিয়ারুল আরিফুলকে এই কাজে সহায়তা করে। এ ঘটনায় ০১/১২/১৪ তারিখ সান্তনা নিজে বাদী হয়ে সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ওই দুজনকে আসামী করে মামলা করেন। (মামলা নং ০২/০১-১২-১৪ জিআর নং ২২৭,নারী ও শিশু ট্রাইবুণাল নং ১০৪/২০০৫)। গত ২২/০৩/১৫ সদর থানার এসআই জাহাঙ্গীর আলম আদালতে ওই দুইজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ¯^াক্ষ্য গ্রহন ও শুনানী শেষে আদালত রবিবার ওই দুইজনকে দোষী সাব্যস্ত করে এই দন্ডাদেশ প্রদান করেন। আসামী পক্ষে আইনজীবি ছিলেন গোলাম মোর্শেদ।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *