Sharing is caring!

SAM_0077 SAM_0084
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সংবাদদাতা \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় উৎপাদিত আম কেমিক্যালমুক্তভাবে বাজারজাত করণ বিষয়ে সোশ্যাল মিডিয়া আড্ডা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসন ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্পের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আড্ডায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক (যুগ্ম সচিব) মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর কবীরের সাথে জেলার আমের বর্তমান বাজারজাতকরণ অবস্থার বিষয়ে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মূখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ। এসময় জেলার আম ব্যবসায়ী আয়াত নূর ইসলাম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাইফুল ইসলাম, চ্যানেল আই এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ও স্থানীয় ‘দৈনিক চাঁপাই দর্পণ’ পত্রিকার সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রঞ্জু, আড়ৎদার এর সাথেও কথা বলেন তিনি। ভিডিও কনফারেন্সের সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম, মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মাকসুদুর রহমান পাটোয়ারী। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে মিডিয়া আড্ডায় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আমিনুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল মামুন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাকসুদা বেগম সিদ্দিকা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাইফুল ইসলাম, প্রবীন সাংবাদিক তালেবুন্নবী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আলমগীর কবির কামাল, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগণসহ আম চাষী, ব্যবসায়ী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। সোশ্যাল মিডিয়া আড্ডায় ফরমালিন বা কেমিক্যালমুক্ত আম বাজারজাত করণে জেলা প্রশাসনের নেয়া বিভিন্ন সচেতনতামূলক কর্মকান্ডের বিবরণ তুলে ধরা হয় এবং জেলার আমে কোন প্রকার কেমিক্যালের ব্যবহার নেয় মর্মে নিশ্চিত করা হয়। আড্ডায় জানানো হয়, আম ব্যবসায়ীদের সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য জেলায় ১৬ হাজার লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে এবং সংবাদপত্র, কমিউনিটি রেডিওসহ বিভিন্ন প্রচার মাধ্যমের সাহায্যে প্রচারণা চালানো হয়েছে। ১ জুন থেকে জেলা প্রশাসন ও বিএসটিআই এর মাধ্যমে পরীক্ষার পর জেলার বাহিরে ট্রাক আ অন্য যানবাহন আম রপ্তানীর জন্য ছাড়পত্র দেয়া হচ্ছে। অপরিপক্ক আম না পাড়া এবং আমে কোন প্রকার কেমিক্যাল ব্যবহার থেকে বিরত থাকার জন্য সকল ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। কোন অসাধু ব্যক্তি যেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের আমের সুনাম ক্ষুন্ন করতে না পারে সেজন্য প্রশাসনসহ আম চাষী ও সংশ্লিষ্টরা সচেতন রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *