Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জস্থ এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিদেশী ফল মাস্ক মেলন চাষের উপর সংবাদ সম্মেলন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয় সম্মেলন কক্ষে দেশী ফল বাঙি ফলের মতো বিদেশী ফল ‘জাপানী’ মাস্ক মেলন চাষের বিস্তারিত বিবরণ তুলে ধরেন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান। এসময় বক্তব্য রাখেন, এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর এবি.এম রাশেদুল হাসান। বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষক নিয়ে এই ফল গবেষণা ও চাষের আর্থিকভাবে সহায়তা করে এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। এসময় সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর এবিএম রাশেদুল হাসান, রেজিষ্টার মকবুল হোসেন,ট্রেজারার শাহরিয়ার কবির, গবেষক ড. আলতাফুন নাহার, ড. সাহেব আলীসহ জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। গবেষক ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান বলেন, দেশের বাঙি এই ফল প্রায় বিলুপ্তির পথে। যার ¯^াদ ও গন্ধ অনেকটাই এ দেশীয় বাঙ্গী’র মতই। বিদেশী এই ফল মাস্ক মেলন চাষ করলে ফলনও যেমন ভালো, আয়ও অনেক বেশী। এক বিঘা জমিতে খরচ ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা এবং আয় প্রায় দ্বিগুন ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। এই ফল চাষে জেলার ও দেশের সকল চাষীকে এগিয়ে আসার আহবান জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে মাধ্যমে সকল পরামর্শ দেয়ারও আশ্বাস দেয়া হয়। বাংলাদেশে বিলুপ্ত প্রায় জনপ্রিয় ‘বাঙ্গী’ জাতীয় ফল মাস্কমেননের বীজ জাপান থেকে নিয়ে এসে গাছে দ্বিতীয় বছরের মত আশানরুপ ফল উৎপাদন হয়। এটি অত্যন্ত পূষ্টিকর বিদেশী ফল। এটি উন্নত দেশে একটি জনপ্রিয় ও অর্থকরী ফসল হিসেবে আবাদ হয়। বরেন্দ্র অঞ্চলে মাস্কমেনন চাষের সম্ভব্যতা যাচাইয়ে চাপাইনবাবগঞ্জস্থ এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষক নিয়ে গবেষণা চলছে। গবেষণা ব্যয়ভার বিশ্ববিদ্যালয় বহন করছে। ফলটি অর্থকরী ফসল হিসেবে বরেন্দ্র এলাকায় প্রতিষ্ঠিত করাই গবেষণার উদ্দেশ্য। এখন পর্যন্ত গবেষনালগ্ধ ফলাফলে গবেষকরা আশাবাদী যে, মাস্কমেনন বরেন্দ্র অঞ্চলে অর্থকরী ফসল হিসেবে চাষ করা সম্ভব। ড. মাহবুবুর রহমান বলেন, ফলটি আবাদ করলে চার থেকে পাঁচ মাসের মধ্যে কৃষক বিনিয়োগের দ্বিগুন অর্থ ফেরৎ পাবেন। বরেন্দ্র এলাকার মাটি ও আবহাওয়ায় ফলটি চাষের সময় বিভিন্ন ধরনের সমস্যা ও তার প্রতিকার সম্পর্কে যথেষ্ট জানা সম্ভব হলেই ফলটি চাষের জন্য চাষিদের উৎসাহিত করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *