Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার দিয়াড় ধাইনগর (শিরটোলা) গ্রাম থেকে ৩টি ককটেলসহ এক দুষ্কৃতিকারীকে আটক করেছে র‌্যাব। আটককৃত দুষ্কৃতিকারী জেলার সদর উপজেলার দিয়াড় ধাইনগর (শিরটোলা) গ্রামের মৃত আহাম্মদ আলী মন্ডলের ছেলে মোঃ বাদল আলী (৪৫)। র‌্যাব জানান, শনিবার বিকেলে র‌্যাব-৫ এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলার সদর উপজেলার দিয়াড় ধাইনগর (শিরটোলা) গ্রামে মোঃ বাদল আলীর বাড়ীতে একটি প্রচন্ড বিস্ফোরণ ঘটেছে এবং একজন ব্যক্তি গুরুতর জখম হয়। ওই সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫ এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল ক্যাম্প কমান্ডার স্কোয়াড্রন লীডার মোহাম্মদ সাঈদ আব্দুল্লাহ আল-মুরাদ এর নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে অভিযান পরিচালনা করে ওই বাড়ীটি ঘেরাওকালীন র‌্যাবের উপস্থিতির টের পেয়ে পালানোর সময় মোঃ বাদল আলীকে আটক করে। র‌্যাব আরো জানান, মোঃ বাদল আলীকে জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, কিছু অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির নিকট হতে অবৈধভাবে ককটেল সমূহ সংগ্রহ করে অসৎ উদ্দেশ্যে তার বাড়ীতে রেখেছিল। কিন্তু তার ৭ বছরের ছোট ছেলে না বুঝে ৪ টি ককটেলকে টিনের কৌটা ভেবে সোনপাপড়ী কেনার উদ্দেশ্যে ফেরীওয়ালার নিকট নিয়ে যায় এবং ফেরীওয়ালাও টিনের কৌটা ভেবে তা ছোট করার জন্য বাটখারা দিয়ে আঘাত করলে সাথে সাথে একটি ককটেল বিস্ফোরিত হয়। ককটেল বিস্ফোরণে ফেরীওয়ালা মোঃ কাজল (১৮) জখম হয়। কাজল গোমস্তাপুর উপজেলার চৌডালা বুলটুংগী গ্রামের। ককটেল বিস্ফোরণের বিকট শব্দে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে এসে গুরুতর জখমপ্রাপ্ত ফেরীওয়ালাকে চিকিৎসার জন্য দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যায়। বিষয়টি আসামী মোঃ বাদল আলী পরিস্থিতি ধামাচাপা দিতে বিস্ফোরণস্থল হতে অপর ৩ টি অবিস্ফোরিত ককটেল নিয়ে তার বাড়ীর আঙ্গিনায় টয়লেটের ভিতর ফেলে দেয়। পরবর্তীতে র‌্যাবের ৪ সদস্যের একটি বোমা বিশেষজ্ঞ দল ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয় এবং আসামীর বাড়ীর আঙ্গিনায় টয়লেটের ভিতর হতে ৩টি অবিস্ফোরিত  ককটেল উদ্ধার করেন। এঘটনায় প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *