Sharing is caring!

Chapai pic. 19-11-15স্টাফ রিপোর্টার \ চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিভিন্ন হাট-বাজারে ১-২ ও ৫ টাকার কয়েন নিয়ে বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীরা। সাধারণ মানুষ পণ্য কেনার পর কয়েন দিলে তা নিতে চাই না ব্যবসায়ীরা। ব্যবসায়ীরা জানান, হাজার হাজার টাকার কয়েন জমা হয়ে রয়েছে অনেকের দোকানে। কিন্তু ব্যাংকগুলো কয়েন নিতে চাচ্ছে না। বর্তমানে উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে ব্যবসাীয় ও সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, দু’এক বছর আগেও কয়েন পাওয়া যাচ্ছিল না। ব্যবসায়ীরা খুচরা টাকার চাহিদা মেটানোর জন্য কয়েন খুজে বেড়াতো। অথচ বর্তমানের চিত্র উল্টো। ‘এতো কয়েন এলো কোথা থেকে। ’ব্যবায়ীরা আরো জানান, ছোট-খাটো অল্প পণ্য ক্রয় করে কয়েন দেয়া ছাড়া উপায় থাকে না সাধারণ মানুষের। কিন্তু সেই কয়েন ব্যবসায়ীরা পরে আর কাজে লাগাতে পারছেন না। এতে করে বিপাকে পড়ছেন তারা। অন্যদিকে কয়েন জমা রেখেও বিপাকে পড়েছেন অনেকে। তারা সেগুলো কোথাও বিনিময় করতে পারছেন না বা কোনো কেনাকাটাও করতে পারছেন না। এ ব্যাপারে স্থানীয় ব্যাংক ব্যবস্থাপকদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকে টাকা নিতে গেলে তাদের ব্যাংকগুলোকে কয়েনের বস্তা ধরিয়ে দিয়ে বলেন, সাধারণ জনগণের মধ্যে এগুলো দিবেন। ব্যবস্থাপকরা আরও জানান, ব্যাংক থেকে ব্যবসায়ীদের কয়েন দেয়া হচ্ছে। কিন্তু ব্যবসায়ীরা যখন কয়েন ব্যাংক দিতে যাচ্ছে, তখন বিপাকে পড়ছে সাধারণ মানুষ। উল্লেখ্য, অনেক বড় বড় মুদি দোকান, বেকারীসহ বিভিন্ন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠানে হাজার হাজার টাকার কয়েন বদ্ধ হয়ে পড়ে আছে। এসব জমে থাকা কয়েনগুলো তাদের কোন কাজে আসছে না। এ সমস্যা দূর করে ব্যবসায়ীদের ক্ষতির হাত থেকে বাঁচাতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছে ভূক্তভোগীরা।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *