Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের রামকৃষ্টপুর সোনারমোড় এলাকা থেকে রশিদা বেগম (২৬) নামে এক গৃহবধুর অগ্নিদগ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গৃহবধু রশিদা ওই মহল্লার হুমায়ন কবিরের ছেলে লেদমিস্ত্রি মিজানুর রহমানের (৩০) স্ত্রী ও সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের কেন্দুল গ্রামের রইস উদ্দিনের মেয়ে। গৃহবধুর ¯^জনদের দাবী, রশিদাকে হত্যার পর তার দেহে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, ১১ বছর পূর্বে রশিদার সাথে আপন খালাত ভাই মিজানুরের বিয়ে হলেও তাঁদের দাম্পত্য জীবনে কোন সন্তান হয়নি। এ নিয়ে ¯^ামী-স্ত্রী’র মধ্যে প্রায়শই কলহ লেগে থাকতো। এমনকি মিজানুর দ্বিতীয় বিয়ের অনুমতি চাইলেও তা প্রদানে অ¯^ীকৃতি জানিয়ে আসছিল রশিদা। সোমবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে পারিবারিক কলহের এক পর্যায়ে রশিদা গায়ে কেরাসিন তেল ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়েছে বলে মিজানুর ও তার পরিবারের সদস্যরা রশিদাকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসকরা রাশিদাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরিবারের সদস্যরা রশিদার লাশ বাড়িতে নিয়ে আসে ও তার ¯^জনদের খবর দেয়। স্বজনেরা চাঁপাইনবাবগঞ্জে এসে রশিদার শশুড়বাড়ি পৌঁঁছার পর সদর থানা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ সকাল ১০টার দিকে রশিদার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এদিকে, রশিদার স্বামী বা শশুরবাড়ির সকলেই পলাতক রয়েছে। নিহত রশিদার বোন তানজিলা বেগমের অভিযোগ, তার বোনকে হত্যা করে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাবের রেজা আহমেদ জানান, ঘটনাটি হত্যা না আত্মহত্যা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *