Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জাতীয় মহিলা সংস্থা’র গ্রাফিক্স

কোর্স উদ্বোধন ও সনদপত্র বিতরণ

♦ স্টাফ রিপোর্টার

জাতীয় মহিলা সংস্থা চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের মহিলা কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রকল্পের আওতায় গ্রাফিক্স ডিজাইন এ্যান্ড মাল্টিমিডিয়া কোর্সের উদ্বোধন এবং অফিস অ্যাপ্লিকেশন প্রশিক্ষণার্থীদের সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠান হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলা শহরের ফুড অফিস মোড়স্থ জেলা কার্যালয়ে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, জাতীয় মহিলা সংস্থা চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অ্যাড. ইয়াসমিন সুলতানা রুমা। অনুষ্ঠানের শুরুতে জেলায় প্রথম চালু হওয়া গ্রাফিক্স ডিজাইন এ্যান্ড মাল্টিমিডিয়া কোর্সের উদ্বোধন ও ২৫ জন প্রশিক্ষণার্থীকে ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়। এরপর ৬ মাস মেয়াদী কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্ষের ২০১৮ সালের জুলাই-ডিসেম্বর ব্যাচের ৪৬ জন এবং আমার ইন্টারনেট, আমার আয় প্রশিক্ষণ কোর্সের ৩৬ জন প্রশিক্ষনার্থীকে সনদপত্র প্রদান করা হয়। জেলা ভিক্তিক মহিলা কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের আয়োজনে অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সহকারী প্রোগ্রামার তাসরিন সুলতানা। এসময় বক্তব্য রাখেন, ভারপ্রাপ্ত জেলা কর্মকর্তা সুফিয়া খাতুন, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রশিক্ষক মোসা. রাহনাজ বন্যা। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় মহিলা সংস্থা চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের নকশী কাঁথা ও কাটিং প্রশিক্ষণ কোর্ষের ট্রেড প্রশিক্ষক সিনুরা বেগম, সহকারী ট্রেড প্রশিক্ষক মুনিরা ইসলাম, দর্জি বিজ্ঞান কোর্সের ট্রেড প্রশিক্ষক রেহেনা ইয়াসমিনসহ নবীন ও বিদায়ী প্রশিক্ষনার্থীরা। সভাপতির বক্তব্যে সংস্থার চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অ্যাড. ইয়াসমিন সুলতানা রুমা বলেন, বর্তমান সরকার নারীদের উন্নয়নে অত্যন্ত আন্তরিকভাব কাজ করে যাচ্ছে। দেশের কোথাও মাত্র এক হাজার টাকায় কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নেয়া যায় না, অন্য কোথাও এত অল্প খরছে গ্রাফিক্স ডিজাইন ও আউটসোসিং এর প্রশিক্ষণ নেই। তাই তথ্য-প্রযুক্তিতে নারীদেরকেও এগিয়ে নিতে সরকার সারাদেশের ৬৪টি জেলায় মহিলা সংস্থার জেলা ভিক্তিক মহিলা কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের মাধ্যমে এই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে। তিনি আরো জানান, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত চেষ্টায় আমাদের দেশের নারীরা বর্তমানে তাদের ভাগ্য বদলাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া সুযোগকে তারা কাজে লাগিয়ে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে এবং নিজেদেরকে স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তুলছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, দেশের মানুষের উন্নয়নে যাদের জমি আছে বাড়ি নেই, তাদেরকে প্রধানমন্ত্রী বাড়ি বানিয়ে দিচ্ছেন। বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, শিক্ষাবৃত্তি প্রদানসহ নানা সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজে বিপুল পরিমান অর্থ ব্যয় করা হচ্ছে। আলহাজ্ব অ্যাড. ইয়াসমিন সুলতানা রুমা বলেন, দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নারীদের অংশগ্রহণে এসব প্রশিক্ষণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এরই ধারাবাহিকতায় এখান থেকেই কয়েকজন নারী প্রশিক্ষণ নিয়ে তথ্য আপা প্রকল্পের বিভিন্ন স্তরে ইতোমধ্যে চাকুরি পেয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেসব সুযোগ দিচ্ছেন, তা কাজে লাগিয়ে নিজেদেরকে স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার আহব্বান জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *