Sharing is caring!

Chapai-2 Press Conচাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ ক্রয়কৃত পুকুর ও জমি জবরদখল ও বিষ প্রয়োগে পুকরের লক্ষ লক্ষ টাকার মাছ নিধনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন পুকরের মালিক চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার শংকরবাটী সরদার পাড়ার ক্ষতিগ্রস্থ মাছ চাষী মোঃ তরিকুল ইসলাম। সোমবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের টি ইসলাম ম্যানসনের মিনার আবাসিক ইন্টারন্যাশনাল এর হলরুমে সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে ক্ষতিগ্রস্থ মাছ চাষী ও পুকুরের মালিক তরিকুল ইসলাম লিখিত বক্তব্যে বলেন, সদর উপজেলার ঝিলিম মৌজার জে.এল নম্বর-৬৭, এস.এ খতিয়ান নম্বর ১৯, এস.এস নম্বর ৩১ ও ৩২, আর এস খতিয়ান নম্বর ১৫৭, আর.এস দাগ নম্বর ৭২৬ ও ৭২৭ এর পুকুর ক্রয়সুত্রে মালিক হইয়া মাছ চাষ করিয়া আসিতেছিলেন দীর্ঘদিন ধরে। গত ১৪ আগষ্ট স্থানীয় ষড়যন্ত্রকারীরা পুকুরে বিষ দিয়ে প্রায় ৮ লক্ষ টাকার মাছ ধংস করে। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, গত ১৪ আগষ্ট রবিবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে আমনুরা টংপাড়ার আমজাদ আলীর ছেলে  শফিকুল ইসলাম, মৃত বাহার আলীর ছেলে আনারুল ইসলাম, মৃত অয়েজউদ্দিনের ছেলে রফিকুল ইসলাম, মাসুদ রানা, মোঃ মিঠুর নেতৃত্বে এলাকার ২০-২৫ জনের একটি দল পাহাদারকে মারধর করে পুকুরে বিষ ঢেলে মাছ মেরে ফেলে। কিন্তু স্থানীয় প্রভাবশালী মহল স্থানীয় আদিবাসীদের লেলিয়ে দিয়ে তরিকুল ইসলামের ক্রয়কৃত পুকুর জবরদখলের ষড়যন্ত্র করছেন। পুকুর জবরদখলের ষড়যন্ত্রের কারণে তাঁর নিজের পুকরের মাছ বিষ দিয়ে ধ্বংস করার পর তরিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা করে হয়রানী করছেন বলে লিখিতভাবে অভিযোগ করেন তরিকুল ইসলাম। স্থানীয় ষড়যন্ত্রকারীরা পুকুর পার্শ্ববর্তী আদিবাসীদের দিয়ে ক্রয়কৃত পুকুর জবরদখলের চেষ্টায় ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। স্থানীয়রা পুকুরে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করে উল্টো ক্ষতিগ্রস্থ মাছ চাষীর বিরুদ্ধে মামলা করে সামাজিকভাবে হেও এবং হয়রানী করছেন। তিনি সংবাদ সম্মেলনে সঠিক তথ্য তুলে ধরে ষড়যন্ত্রকারীদের হাত থেকে রক্ষা করার অনুরোধ জানান সাংবাদিকদের কাছে। সাংবাদিক সম্মেলনে তরিকুল ইসলাম তাঁর ক্রয়কৃত জমি ও পুকুরের ¯^পক্ষের কাগজপত্র তুলে দেন সাংবাদিকদের হাতে। উল্লেখ্য, গত ১৫-০১-১৪ইং তারিখ দাতা সাইদুর রহমান ৫৫০/২০১৪, ৫৫০/১৪ নম্বর দলিল মুলে .৮২০৩ একর, দাতা মোঃ আজিবুর রহমান (জাহির) ৫৪৯/২০১৪ নম্বর দলিল মুলে ১.৯৭৮৩ একর জমি তরিকুল ইসলাম বরাবর হস্তান্তর করেন। গত ২৭/০৪/১৪ ইং তারিখ ৪২৮৭ নম্বর সিরিয়ালে খারিজ করে প্রস্তাবিত খতিয়ান নম্বর ১৭৫০ নম্বর মূলে ভোগদখল করে আসছেন তিনি।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *