Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াত চক্রের ৮ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। ৩ মার্চ থেকে ৫ মার্চ পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন এলাকা ও বগুড়া শহরে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে টাকার বিনিময়ে নিয়োগ পাইয়ে দেয়া প্রতারক চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে ২জন নিয়োগ প্রত্যাশায় টাকা দেয়া প্রার্থী ও ৬ জন মূল জালিয়াত চক্রের সদস্য। এসময় বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা জব্দ করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার চৌকা গ্রামের পবন সিংহের ছেলে ফুলচাঁন সিংহ, একই গ্রামের মৃত আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে মনিরুল ইসলাম ও আব্দুস সালাম, পুকুরিয়া গ্রামের মৃত তছির উদ্দিনের ছেলে আনোয়ার হোসেন, ভুটিটোলা গ্রামের গাজরুল ইসলামের ছেলে আমীন আলী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের মসজিদপাড়ার মোফাজ্জল হোসেনের স্ত্রী তাজেনুর বেগম, রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার পালানু সাহাপুর গ্রামের সালাম মন্ডলের ছেলে সেতু মন্ডল (২২) ও শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার পাঠাকাটা গ্রামের আবু সুফিয়ানের ছেলে মোকারম হোসেন (২৪)। সোমবার বিকেলে পুলিশ সুপার মোজাহিদুল ইসলাম পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিং-এ ঘটনার বিবরণ তুলে ধরেন। তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃতরা সবাই জালিয়াতির সাথে জড়িত। টাকার বিনিময়ে এসব প্রতারকরা প্রার্থী বদল করে লিখিত পরীক্ষায় সংশ্লিষ্ট প্রার্থীদের উত্তীর্ণ করার চেষ্টা করে। গত ৩ মার্চ লিখিত উত্তীর্ণদের মৌখিক পরীক্ষা নেয়ার সময় প্রার্থী ফুলচাঁন ও আমীনকে সন্দেহ হলে আটক করা হয়। তদন্তে নিশ্চিত হয়, এরা নিজেরা লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেয়নি। প্রার্থী ফুলচাঁনের স্বীকারোক্তিতে গ্রেপ্তার হয় জারিয়াত দু’ভাই মনিরুল ও সালাম। দু’ভাইয়ের স্বীকারোক্তিতে গ্রেফতার হয় একই চক্রের তাজেনুর বেগম। তাঁর বাড়ী থেকে উদ্ধার হয় ১০ লক্ষ টাকা। তাঁর স্বীকারোক্তিতে গ্রেপ্তার হয় ওই চক্রের আনোয়ার। তাঁর নিকট থেকে উদ্ধার হয় ৫ লক্ষ টাকা। তাজেনুর ও আনোয়ারের তথ্যে বগুড়া শহর থেকে গ্রেফতার হয় চক্রের মুল হোতা সেতু ও তাঁর সহযোগী মোকারম। পুলিশ সুপার আরও বলেন, এ রকম একাধিক চক্র পুলিশ নিয়োগ পরীক্ষায় সক্রিয় ছিল। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। উল্লেখ্য, চলতি নিয়োগ পরীক্ষায় জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার ৬ পরীক্ষার্থীর হয়ে টাকার বিনিময়ে বদলি লিখিত পরীক্ষা দিতে এসে গত ২৭ ফেব্রæয়ারী গ্রেফতার হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৬ ছাত্র।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *