Sharing is caring!

হোম কোয়ারেন্টাইনে ৬৯

চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রথম ধাপে ১০ জনের করোনা

ভাইরাস নমুনা সংগ্রহ

 

♦ স্টাফ রিপোর্টার 

চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রথম ধাপে করোনা ভাইরাস সনাক্তে ৫ উপজেলার ১০ জনের নমুনা সংগ্রহ করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। রবিবার সকালে করোনার উপসর্গ থাকা সন্দেহভাজনদের নমুনাগুলো সংগ্রহ করে করোনা ভাইরাস সনাক্তে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরীক্ষাগারে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়। এর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ৩ জন, শিবগঞ্জ’র ৩ জন, গোমস্তাপুর ২ জন, নাচোল ও ভোলাহাট উপজেলার ১জন করে মোট ১০জন। সদর উপজেলার ৩ জনের একজনের বাড়ি থেকে এবং ২ জনের হাসপাতাল থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বাকী ৪ উপজেলায় সকলের নমুনা বাড়ি থেকে সংগ্রহ করা হয়। সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী জানান, দেশের করোনা পরিস্থিতি নির্ধারণ করতে সারাদেশে করোনা ভাইরাস সনাক্তকরণের উদ্যোগ হিসেবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগ বিভিন্ন স্থানে গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করছে। প্রথমে যে সমস্ত বাড়িতে লালপতাকা বা হোম কোয়ারেনটাইন লিখা রয়েছে এবং যাদের মধ্যে করোনার উপসর্গগুলো রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে, তাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নমুনা সংগ্রহ করে ফলাফলের উপর ভিত্তি করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। রবিবার বেলা ১১টা পর্যন্ত ১০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সন্দেহভাজন সকলের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। তিনি আরও জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জে এখন পর্যন্ত কোন বাড়ি লকডাউন করা হয়নি। জেলার করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বিনা প্রয়োজনে বাড়ি থেকে বের না হওয়া, সর্বদা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকাসহ সরকারী নির্দেশনাগুলো মেনে চলার আহবান জানান তিনি। সিভিল সার্জন বলেন, রবিবার জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে মোট ৬৯ জন এবং মেয়াদ শেষ হয়েছে ৮৫৫ জনের। বর্তমান পরিস্থিতিতে হোম কোয়ারেন্টাইন বিশেষ বিষয় নয়, সারাদেশে নমুনা সংগ্রহ শুরু হয়েছে। নমুনার ফলাফল পেলে জানা যাবে সঠিক টা। এতদিন বিদেশীদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা বলা হচ্ছিল, বর্তমানে এক উপজেলা থেকে আরেক উপজেলা কেউ গেলে, তাকেই ১৪দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। তিনি বলেন, পরীক্ষা না করা পর্যন্ত বলা সম্ভব হচ্ছে না, আমরা কে এই ‘করোনা ভাইরাস’ মুক্ত। তাই আমাদের সকলকেই সতর্ক ও সাবধানতার সাথে থাকতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *