Sharing is caring!

7_21_2001 4_44 PM_0001
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সংবাদদাতা \ খাদ্যদ্রব্যে ফরমালিন প্রতিরোধে বিকল্প স্বাস্থ্যসম্মত প্রিজারভেটিভ ব্যবহারে সচেতনতা বিষয়ক কর্মশালা হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে। জেলা প্রশাসন ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের যৌথ উদ্যোগে শনিবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের মহাপরিচালক মোঃ আব্দুল হালিম। জেলা প্রশাসক (যুগ্ম সচিব) মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর কবীরের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিকল্প স্বাস্থ্যসম্মত প্রিজারভেটিভ ব্যবহার এবং উপকারিতা বিষয় তুলে ধরেন বাংলাদেশ পরমানুশক্তি কমিশনের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও পরিচালক ড. মোবারক আহম খান। বক্তব্য রাখেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাইফুল ইসলাম, উদ্যান গবেষণা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা সফিকুল ইসলাম, ভোলাহাট আম ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হকসহ আম চাষী ও ব্যবসায়ীরা। উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের পরচিালক (উপ-সচিব) কামরুন নাহার সিদ্দীকা ও উপ-পরিচালক (সিনিয়র সহকারী সচিব) মোঃ আলী নেওয়াজ রাসেল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাকসুদা বেগম সিদ্দিকা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মির্জা সাকিলা দিল হাছিন, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগণ, ম্যাংগো মার্চেন্ট এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মনিরুল ইসলাম. ড. সরফউদ্দিন, সহ অন্যরা।7_21_2001 4_55 PM_000122

কর্মশালায় জেলার বিভিন্ন উপজেলার প্রায় ৫০জন আমচাষী ও ব্যবসায়ীরা অংশ নেয়। কর্মশালায় চিংড়ির খোসা থেকে তৈরী কাইটোসান বিকল্প স্বাস্থ্যসম্মত প্রিজারভেটিভ হিসেবে আমফলসহ বিভিন্ন ফলে ব্যবহারের সুফল বিষয়ে বিস্তারিত ধারণা প্রদান করা হয়। কর্মশালায় বলা হয়, কর্মশালায় চিংড়ির খোসা থেকে তৈরী কাইটোসান ব্যবহার করে মাত্র ১ টাকা খরচে ১ কেজি আম প্রিজারভেটিভ করে ১৫ থেকে ২০ দিন রাখা যায়। হরমোন এবং ফরমালিন ব্যবহারের কারণে বিদেশে আম রপ্তানীর ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে। কিন্তু কাইটোসান ব্যবহার করে আম প্রিজারভেটিভ করলে রপ্তানী করতে কোন সমস্যা থাকবে না। কাইটোসান দিয়ে আম, টমেটো, আনারস, লিচু, দুধ, মাছসহ বিভিন্ন ফল প্রিজারভেটিভ করা হয় এবং যা স্বাস্থ্যসম্মত। চিংড়ির খোসা থেকে প্রাকৃতিক প্রিজারভেটিভ কাইটোসান তৈরী হয়। বিষাক্ত ফরমালিন বিকল্প হিসেবে আমসহ সব ধরণের ফলকে পরীক্ষাগারে ২ থেকে ৩ সপ্তাহ পর্যন্ত ভাল রাখা সম্ভব। কাইটোসান সম্পুর্ণ প্রাকৃতিক হওয়ায় আমসহ সব ধরনের ফলের গুনগত মান ঠিক রাখে। কাইটোসান প্রয়োগ করা ফল স্বাস্থ্যসম্মত এবং এর কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। আমের মুকুল হতে গুটি হওয়ার সাথে সাথে কাইটোসান ব্যবহার করলে কীটনাশক বা হরমোন ব্যবহারের প্রয়োজন হয় না। কাইটোসান প্রয়োগে আমের উৎপাদনও বৃদ্ধি পাবে। কাইটোসান দামেও সস্তা, তাই সকলের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে। বাংলাদেশ পরমানু শক্তি কমিশনের বিজ্ঞানিদের আবিস্কার এই নিরাপদ প্রিজারভেটিভ ব্যবহার করে নিরাপদ ফল বাজারজাত করার আহবান জানানো হয় কর্মশালায়।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *