Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা

গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্টের ফাইনাল

♦ চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টূর্ণামেন্ট এর ফাইনাল খেলা হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে। মঙ্গলবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা স্টেডিয়ামে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ৩দিনব্যাপী এই টূর্ণামেন্টের সমাপনী খেলায় অংশ গ্রহণ করে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্টে গোমস্তাপুর উপজেলার খয়রাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল দল বনাম ভোলাহাট উপজেলার ময়ামারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল দল। এ খেলায় ১-০ গোলে চ্যাম্পিয়ন হয় ময়ামারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল দল। এদিকে, বিকেলে সাড়ে ৩টায় জেলা স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টূর্ণামেন্টে অংশ নেয় সদর উপজেলার চরবাগডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বনাম শিবগঞ্জ উপজেলার রানীবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল দল। এতে ৪-১ গোলে চ্যাম্পিয়ন হয় রানীবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল দল। খেলা শেষে বিজয়ী দলের হাতে চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ ট্রফি তুলে দেয়া হয়। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা প্রশাসক এ.জেড.এম নূরুল হক। অতিরিক্ত জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. সায়েদুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. দাউদ হোসেন, পুলিশ সুপার টি.এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম, সিভিল সার্জন ডা. খায়রুল আতাতুর্ক, জেলা ক্রীড়া অফিসার আকতারুজ্জামান রেজা তালুকদার (রুমী)। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আব্দুল হান্নান মাস্টার, সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুল ইসলাম তোফা, সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোসা. নাজমা বেগমসহ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও সহকারী শিক্ষা অফিসারগণ, বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষগণ এবং শিক্ষার্থীরা। প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক বিজয়ী দলসহ সকলকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা আদর্শ বুকে লালন করে সবাই মিলে সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হবে। বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা সম্পর্কে আলোচনা করতে গিয়ে খেলোয়াড়দের এক প্রশ্ন করেন ‘বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা আমাদের কোথায় আছেন’? এ প্রশ্নের উত্তরে রানীবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল দলের মোমিন দ্রুতোই উত্তর দেন ‘আমাদের হৃদয়ে’। প্রেক্ষিতে পুলিশ সুপার তাৎক্ষনিক ২ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করে মোমিনের হাতে তুলে দেন। তিনি আরো বলেন, খেলাধুলা শিশুদের সুস্থ্য থাকার জন্য একটি উত্তম উপায়। খেলাধুলা শারীরিকভাবে আমাদের যেমন সুস্থ্য রাখে, তেমনী মাদকের ছোঁবল থেকে রক্ষা করে। তাই আমাদের শিশুরা বেশি বেশি করে খেলাধুলা করবে এবং বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলবে। খেলা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন নবাবগঞ্জ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মারুফুল হক ও জামিরুল রহমান জামিল। প্রধান রেফারি হিসেবে খেলা পরিচালনা করেন শাহিন ইসলাম টিটো, সহকারি রেফারি ছিলেন তারাজ উদ্দিন ও মিনহাজুল এবং চতুর্থ রেফারি ছিলেন হুমায়ন কবির লুকু। চ্যাম্পিয়ন হওয়া বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল দল আগামী ১৮ ডিসেম্বর রাজশাহী মুক্তিযুদ্ধ স্টেডিয়ামে নাটোর জেলার চ্যাম্পিয়ন দলের খেলবে। উল্লেখ্য, টূর্ণামেন্টে জেলার ৫টি উপজেলার প্রতিটি উপজেলার ১টি বঙ্গবন্ধু ও ১টি বঙ্গমাতা ফুটবল দল নিয়ে জেলার মোট ১০টি দল অংশ নেয়।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *