Sharing is caring!

SAM_3782 SAM_3783 SAM_3787 SAM_3798 চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিজিবি’র ৫৯ ব্যাটালিয়নের পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠান হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জস্থ ৯ বিজিবি ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরে নতুন ৫৯ বিজিবি’র পতাকা উত্তোলন করেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি’র মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ। জেলার সীমান্ত সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যেই নতুন বিজিবি ব্যটালিয়নের প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে বলে জানান বিজিবি’র মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিজিবির উত্তর-পশ্চিম রিজিয়নের রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মাহফুজুর রহমান, রাজশাহী সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল কেএম ফেরদাউসুল শাহাব, ৯ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল আহমেদ জুনায়েদ আলম খান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর কবীর, ৯ বিজিবির অপারেশন অফিসার মেজর মোঃ মিন্নাত আলী, এনএসআই’র উপ-পরিচালক মোঃ শামসুজ্জোহা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি গোলাম মোস্তফা মন্টু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এমরান ফারুক মাসুম, সাধারণ সম্পাদক মোহাঃ জোনাব আলী, প্রবীন সাংবাদিক মুক্তিযোদ্ধা তসলিমউদ্দিন ও তালেবুন্নবী, চ্যানেল আই’র জেলা প্রতিনিধি ও দৈনিক চাঁপাই দর্পণ’র সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রঞ্জু, জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া কর্মীগণ, আইনশৃক্সখলা বাহিনীর জেলার বিভিন্নস্তরের কর্মকর্তাগণ ও বিজিবি’র বিভিন্নস্তরের কর্মকর্তা ও সদস্যবৃন্দসহ অন্যরা। পরে প্রধান অতিথি প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার প্রতিনিধিদের প্রেস ব্রিফিং করেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার গোবরাতলা ইউনিয়নে ২৫ একর জমির উপর ৫৯ বিজিবি’র সদর দপ্তর প্রতিষ্ঠার কাজ শুরু হয়েছে। প্রধান অতিথি সীমান্ত এলাকায় যাতায়াতের উন্নয়ন, সমস্যা সমাধান, চোরাচালান প্রতিরোধ, সীমান্ত হত্যা বন্ধ, বর্ডার হাট সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন। মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ সীমান্ত সড়ক প্রসঙ্গে বলেন, প্রধানমন্ত্রী এই সংক্রান্ত একটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন এবং প্রথম পর্যায়ে টেকনাফ সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া ও সীমান্ত সড়ক নির্মাণ করা হবে। ২০১৬ সালে এই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। পর্যায়ক্রমে দেশের সব সীমান্তেই বিজিবি’র চলাচলে সুবিধা ও চোরাচালান রোধে আরও ভূমিকা রাখার জন্য সীমান্তে সড়ক নির্মাণ করা হবে। সীমান্ত হত্যা প্রসঙ্গে বলেন, বাংলাদেশীরা অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম না করলে এবং সীমান্তের লোকজনসহ সকলেই সচেতন হলে সীমান্ত হত্যা শূণ্যের কোঠায় নিয়ে আসা সম্ভব হবে। মাদকপাচার রোধে বিজিবি’র প্রতিটি সদস্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। ফলশ্রæতিতে প্রায় প্রতিদিন বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য আটকে সক্ষম হচ্ছে বিজিবি। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা চোরাচালানের দিক থেকে ঝুঁকিপূর্ণ, তাই ৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পাশাপাশি আরও একটি ব্যাটালিয়ন ৫৯ ব্যাটালিয়নের প্রতিষ্ঠা করা হলো। তিনি বলেন, সীমান্ত প্রহরা বজায় রেখে দেশের আইনশৃক্সখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিজিবি সদস্যরা অবদান রাখছে। যতদনি বেসমারিক প্রশাসন চাইবে ততদিন দেশের অন্যান্য বাহিনীর সাথে বিজিবি দেশের আইনশৃক্সখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে দায়িত্ব পালন করে যাবে। নির্বাচন কমিশন চাইলে পৌরসভার নির্বাচনেও বিজিবি মোতায়েন করা হবে। তিনি আরও বলেন, সীমান্তে যেসব এলাকায় দেশের ¯^ার্থ বেশী উপকৃত হবে, সেসব এলাকায় বর্ডার হাট স্থাপনের প্রক্রিয়া চলছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সীমান্ত হত্যা, চোরাচালান বন্ধসহ বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি। শেষে ৫৯ বিজিবি’র সাফল্য কামনা করে দোয়া করা হয়। পরে ৯ বিজিবি সদর দপ্তরে গাছের চারা রোপন করেন মহাপরিচালক।

SAM_3801

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *