Sharing is caring!


স্টাফ রিপোর্টার \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বে-সরকারি কলেজ, মাধ্যমিক ও মাদ্রাসার শিক্ষক-কর্মচারীদের ৭ দফা দাবিতে মানববন্ধন পালন করেছে শিক্ষক-কর্মচারীরা। শহরের বঙ্গবন্ধু মুক্ত মঞ্চের সামনে সোমবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা বে-সরকারী শিক্ষক-কর্মচারী সমš^য় পরিষদের উদ্যোগে অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্ট এর নামে অতিরিক্ত ৪ শতাংশ কর্তন বাতিল, ৫ শতাংশ বার্ষিক প্রবৃদ্ধি, বর্তমান স্কেলে চিকিৎসা ভাতা, বাড়ি ভাড়া, পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতা ও বৈশাখী ভাতা প্রদানসহ সর্বোপরি শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শিক্ষক-কর্মচারী সমš^য় পরিষদের আহŸায়ক শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, যুগ্ম আহŸায়ক মোঃ আসলাম কবীর, মোঃ হাসিনুর রহমান। শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক নওসাবাহ্ নওরীন নেহার সঞ্চলানায় মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন সমিতির সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ ওবাইদুর রহমান, অধ্যক্ষ মোঃ তরিকুল আলম সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আতাউর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইউসুফ আলী, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ গোলাম ফারুক (মিথুন), সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাঃ ফিরোজ কবির। আরো বক্তব্য রাখেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার শাখা বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি মোঃ শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, শিবগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সেরাজ উদ দৌলা, নাচোল শাখার সভাপতি জহির উদ্দিন, ভোলাহাট শাখার সাধারণ সম্পাদক জুয়েল ইসলামসহ শিক্ষক সমিতির নেতৃবুন্দ। বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর যে সকল সাফল্য অর্জন করেছেন তার মধ্যে শিক্ষা ব্যবস্থা অন্যতম। কিন্তু সম্প্রতি সরকারের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন ও শিক্ষক বিরোধী করার এক গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়ে তড়িঘড়ি করে গুটি কয়েক সুবিধাভোগি শিক্ষক নেতার পরামর্শে কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধার নামে অতিরিক্ত ৪ শতাংশ কর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়ে শিক্ষক সমাজকে হতাশ করে তুলেছে। যার প্রেক্ষিতে শিক্ষক সমাজ সারাদেশে ক্ষোভে ফেটে পড়েছে। সরকারের উদ্দেশ্যে বক্তারা আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায় আসার আগে শিক্ষকদের উদ্দ্যেশে ইশতেহার দিয়ে বলেছিলেন, শিক্ষকদের রাস্তায় দাঁড়াতে দিবো না। শিক্ষকদের জন্য যা করা দরকার তা-ই করবো। আপনি বর্তমানে ৮ বছর ক্ষমতায় রয়েছেন। কিন্তু অতিরিক্ত ৪ শতাংশ কর্তন শিক্ষামন্ত্রীর এমন ভূল সিদ্ধান্তের কারণে আমাদের বে-সরকারি শিক্ষক-কর্মচারী সমাজ ক্ষোভে ফেটে উঠেছে। আমরা আপনার কাছে এ শিক্ষামন্ত্রীর ভূল সিদ্ধান্তের প্রতিকার চাই। তাই আপনার কাছে প্রতিকার চেয়ে আমাদের ৭টি দাবি জানাচ্ছি। দাবীসমূহ হচ্ছে, অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্ট এর অতিরিক্ত ৪ শতাংশ কর্তন এর গেজেট বাতিল, ৫ শতাংশ বার্ষিক প্রবৃদ্ধি প্রদান, বর্তমান স্কেলে পুর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতা প্রদান, বৈশাখী ভাতা প্রদান, সন্তোষজনক বাড়ি ভাড়া প্রদান, বর্তমান বেতন কাঠামোয় টাইম স্কেল, সহযোগী অধ্যাপক ও অধ্যাপক পদে পদোন্নতি প্রাদন এর ব্যবস্থা গ্রহণ ও সর্বোপরি শিক্ষা জাতীয়করণ। আমাদের এই ৭ টি দাবিতে অবিলম্বে মেনে নিয়ে শিক্ষকদের রাস্তা থেকে ক্লাসে যাওয়ার সুযোগ করে দেন। এছাড়া আমাদের দাবিসমুহ না মানলে আরো কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি হুশিয়ারি দেন শিক্ষক নেতারা। আগামী ২০ জুলাই জেলার প্রতিটি বে-সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক-কর্মচারীদের কালো ব্যাচ ধারণ ও ২৭ জুলাই শহরের বঙ্গবন্ধু মুক্ত মঞ্চে প্রতিকী অনশনের কর্মসূচী ঘোষনা দেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শিক্ষক-কর্মচারী সমš^য় পরিষদের আহŸায়ক অধ্যক্ষ মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *