Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে মায়ের সাথে প্রতারণা \ মামলায় ছেলে কারাগারে

♦ স্টাফ রিপোর্টার 

চাঁপাইনবাবগঞ্জে জমি জালিয়াতি ও প্রতারণার অভিযোগে নিজ মায়ের দায়ের করা মামলায় ছেলেকে কারাগারে পাঠিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত। আসামী প্রতারক ছেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের আরামবাগ নতুনপাড়ার মৃত নজরুল ইসলাম ও মনোয়ারা খাতুনের বড় ছেলে মো. মিজানুর রহমান (৪৫)। মামলা নম্বর-৫২১সি/২০১৬। বৃহস্পতিবার বিজ্ঞ আদালত মিজানুরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ। আদালত ও মামলার আইনজীবী সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১৬ জুন নবাবগঞ্জ সদর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে অজ্ঞাতনামা এক নারীকে মা সাজিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে আম মোক্তারনামা দলিল করে বসত বাড়ি ও মডার্ণ মার্কেটের দোকান ঘর লিখে নেয় নিজ ছেলে মো. মিজানুর। বিষয়টি জানতে পেরে ২০১৬ সালের ২৮ জুলাই মনোয়ারা খাতুন বাদী হয়ে জমি জালিয়াতি ও প্রতারণার অভিযোগে তার বড় ছেলে মো. মিজানুর রহমান, মিজানুরের স্ত্রী উম্মে সালমা পপি ও দলিল লেখক বাদশা ফাহাদকে আসামী করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি জুডিশিয়াল তদন্ত শেষে প্রাথমিকভাবে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আসামীদের সমন ইস্যু করেন বিজ্ঞ আদালত। আসামীরা গত ৫ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির হলে বিচারক মোঃ এরশাদ আলী মামলার প্রধান আসামী মিজানুর রহমানকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এর আগেও আপোষ করার শর্তে মামলাটি সমাধানের সুযোগ দেন বিজ্ঞ আদালত। কিন্তু প্রতারক মিজানুর কোন আপোষ না করায় তার জামিন বাতিল করে আবারও কারাগারে পাঠান বিচারক মোঃ এরশাদ আলী। মামলার বিবরণীতে বাদী মনোয়ারা খাতুন উল্লেখ করেন, তার বড় ছেলে মো. মিজানুর রহমানকে তার বসত বাড়ী ও দোকানঘর কোনদিনও লিখে দেননি। আসামী তার ছেলে ও দলির লেখক ২০১৫ সালের ১৬ জুন নবাবগঞ্জ সদর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে অজ্ঞাত এক নারীকে মা সাজিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে আম মোক্তারনামা দলিল সৃষ্টি করে বসত বাড়ি ও মডার্ণ মার্কেটের দোকান তার নামীয় করে নেয়। আসামীরা পরস্পর যোগসাজসে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে দোকান পজিশন বিক্রয়নামা দলিল সম্পাদনও করেন। বাদীর আইনজীবী মো. তোহরুল ইসলাম পিন্টু জানান, আসামীরা অন্য কাউকে মনোয়ারা সাজিয়ে তার বসতবাড়ী ও নিউ মার্কেটের দোকানঘর জালিয়াতির মাধ্যেমে দলিল করে প্রতারণা করেছে। মামলাটি জুডিশিয়াল তদন্ত শেষে প্রাথমিকভাবে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ও বাদীর সাথে আপোষ না করায় প্রধান আসামী বাদীর বড় ছেলে মিজানুরের জামিন বাতিল করে বিজ্ঞ আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ এরশাদ আলী কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *