Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ‘লুসিড ড্রিংকিং ওয়াটার’

কে জরিমানা

♦ চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার দুর্গাপুরে অবস্থিত ‘লুসিড ড্রিংকিং ওয়াটার’ নামক ফিল্টার পানি তৈরির ও বাজারজাতকরণ কারখানায় অভিযান চালিয়ে জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জ কার্যালয়। নোংরা পরিবেশ, বিক্রয় রশিদ না দেয়া, মেয়াদ উত্তীর্ণ রাসায়নিক দ্রব্য রাখা, পানি পরিক্ষার জন্য ল্যাব না থাকাসহ নানা কারণে এই জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জ কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. জহিরুল ইসলাম জানান, বর্তমানে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১২ থেকে ১৫টি ফিল্টার পানির প্রক্রিয়াকরণ ও বাজারজাতকরণ প্রতিষ্ঠান আছে। তিনি আরো জানান, সরেজমিনে দেখা যায় ‘লুসিড ড্রিংকিং ওয়াটার’ কারখানায় নোংরা পরিবেশে পানি প্রক্রিয়াকরণ করা হচ্ছে। মিলেছে মেয়াদ উত্তীর্ণ রাসায়নিক দ্রব্য। জহিরুল ইসলাম জানান, কারখানাটি ২০১৭ সালের পর কোন ধরণের পরীক্ষা ছাড়াই ফিল্টার পানি বাজারজাত করছে। পানি পরিক্ষার জন্য একটি ল্যাব থাকার কথা থাকলেও সেটিও নেই প্রতিষ্ঠানটির। ফিল্টার পানির নামে ভোক্তাদের সাথে প্রতিনিয়ত প্রতারণা করে আসছে ‘লুসিড ড্রিংকিং ওয়াটার’ নামে প্রতিষ্ঠানটি। ২০ লিটার প্রতি জারের বিক্রয় মূল্য ৩০ থেকে ৫০ টাকা নেয়া হচ্ছে। নোংরা পরিবেশ, বিক্রয় রশিদ না দেয়া, মেয়াদ উত্তীর্ণ রাসায়নিক দ্রব্য রাখা, পানি পরিক্ষার জন্য ল্যাব না থাকাসহ নানা কারণে প্রতিষ্ঠানটিকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জ কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. জহিরুল ইসলাম। জেলার বিভিন্নস্থানে ভোক্তার সার্থে অভিযান চলমান থাকবে বলেও জানান তিনি। উল্লেখ্য, বাংলাদেশে প্রায় ২ কোটি মানুষ আর্সেনিক দুষিত পানি পান করছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেব অনুযায়ী আর্সেনিকের কারণে দেশে বছরে ৪৩ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *