Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসনের আয়োজনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার টিকরামপুর, চরমোহনপুর ও রেহাইচর এলাকার শীতার্ত হতদরিদ্র নারী পুরুষের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে টিকরামপুর উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের সরবরাহকৃত এই শুকনো খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (উপ-সচিব) ড. মোঃ হাবিবউল্লাহ বাহার, বীরশ্রেষ্ঠ মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর কলেজের অধ্যক্ষ ও মহারাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অধ্যক্ষ এজাবুল হক বুলি, টিকরামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা আমির হোসেন। সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ত্রাণ কর্মকর্তা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আমিনুল ইসলাম ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ সাইফুল ইসলাম। প্রচন্ড শীতে মানুষের কাজ করতে সমস্যা হওয়ায় দরিদ্র পরিবারকে সহায়তা হিসেবে এই শুকনো খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। এলাকার ৪ শতাধিক নারী-পুরুষকে (চাউল, চিনি, তেল, ডাল, বিস্কুট, লবন, চিড়া, মুড়ি, মোমবাতী, ম্যাচ) সহ একটি করে প্যাকেট তুলে দেয়া হয়। এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষকমন্ডলী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান বলেন, প্রচন্ড শীতে দরিদ্র মানুষরা কাজ যেতে পারছেনা। শীত নিবারণের জন্য সরকার যেমনভাবে শীতবস্ত্র বিতরণ করার উদ্যোগ নিয়েছেন, তেমনই, ঠিকমত কাজ না পাওয়া বা কাজ করতে না পারায় দরিদ্ররা মানুষরা যেন খাদ্য কষ্ট না পায়, সেজন্যই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শুকনো খাবার বিতরণের ব্যবস্থা করেছেন ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে। তিনি বলেন, ইতোমধ্যেই জেলায় প্রায় ৩৮ হাজার কম্বল বিতরণ করা হয়েছে, বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তিগত উদ্যোগেও শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। সরকার জেলার দরিদ্র অসহায় মানুষদের জন্য বেশকিছু প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণের জন্য পাঠিয়েছেন। পর্যায়ক্রমে এসব শুকনো খাবার জেলার বিভিন্নস্থানে বিতরণ করা হবে। বর্তমান সরকারের এই উদ্যোগকে প্রসংশসনীয় এবং বড় মহৎ উদ্যোগ বলে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান অন্যান্য বক্তারা। আগামীতে এসব ধারাকে অব্যহত রাখতে এমনই সরকারকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় নিয়ে আসার আহবানও জানান বক্তারা।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *