Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সদ্য প্রয়াত নাট্যকার

মমতাজ উদ্দিনের স্মরণ সভা

♦ স্টাফ রিপোর্টার

একুশে পদকপ্রাপ্ত দেশবরেণ্য প্রখ্যাত নাট্যশিল্পী, ভাষাসৈনিক, শিক্ষাবিদ, লেখক চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার কৃতি সন্তান মমতাজ উদদীন আহমেদ এর প্রয়াণে স্মরণ সভা হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে। শনিবার সকালে গাঙচিল সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখা ও জেলা স্বাধীন সাহিত্য পরিষদের আয়োজনে জেলা সরকারি গ্রন্থাগারে এই স্বরণ সভা হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের সংরক্ষিত মহিলা এমপি ফেরদৌসী ইসলাম জেসী। বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোহা. ইব্রাহিমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা স্বাধীন সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক তুফান, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ আ.আ.ম মেসবাহুল হক বাচ্চু ডাক্তারের সন্তান ও যুবলীগ নেতা মেসবাহুল সাকের জ্যোতি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভায় সাবেক কাউন্সিলর শরিফা খাতুন বেবী, সাবেক পৌর কাউন্সিলর শহিদ হোসেন রানা। অনুষ্ঠানের শুরুতে মরহুমের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক খন্ডকালীন শিক্ষক মমতাজ উদদীন আহমেদ এর জীবনী তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন, গাঙচিল সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদের উপদেষ্টা অ্যাড. আফসার উদ্দীন, দৈনিক চাঁপাই দর্পনের সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রঞ্জু, দৈনিক গৌড় বাংলার সম্পাদক ও রেডিও মহানন্দার সিইও হাসিব হোসেন, জেলা সরকারি গ্রন্থাগারের গ্রন্থাগারিক মাসুদ রানা, গাঙচিল সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সাইদ কামরুল, সদস্য লেখক আব্দুস সাত্তার, কবি সুমন রেজাসহ অন্যান্যরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন, নবাবগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাসিনুর রহমান, জেলা গাঙচিল সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদ ও জেলা স্বাধীন সাহিত্য পরিষদের সদস্যবৃন্দ কবি-সাহিত্যিকগণ। শেষে মমতাজ উদদীন আহমেদ এর রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া করা হয়। উল্লেখ্য, একুশে পদক প্রাপ্ত প্রখ্যাত নাট্যকার, নির্দেশক ও অভিনেতা চাঁপাইনবাবগঞ্জের কৃতি সন্তান অধ্যাপক মমতাজউদদীন তিনি রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে গত রোববার (২ জুন) বেলা ৩টা ৪৮ মিনিটে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুতালে তিনি স্ত্রী ও ৪ ছেলে সন্তান ডা. তিতাস মাহমুদ, তমাল মাহমুদ, তিয়াসা আহমেদ ও তাহিতি আহমেদসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ওই দিন রাতে রাজধানীর মিরপুর রূপনগরে তাঁর বাসভবনসংলগ্ন মদিনা মসজিদে বাদ এশা প্রথম জানাজা হয়। এরপর সোমবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা হয়। পারিবারিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাঁর ইচ্ছাতেই তাঁকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার বজরাটেক সবজা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টায় ৩য় জানাযা শেষে গ্রামের বাড়িতে বাবার কবরের পাশে চিরশায়িত করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *