Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে স্ত্রী হত্যার দায়ে

যুবক সুমনের মৃত্যুদন্ড

♦ স্টাফ রিপোর্টার

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাবেক স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী সুমন আলী (২৭) নামে এক যুবককে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃতুদন্ড কার্যকর করার আদেশ দিয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের আদালত। সোমবার দুপুরে আসামীর উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ অতিরিক্ত দায়রা জজ শওকত আলী। রায়ে ১ লক্ষ টাকা অর্থদন্ডও প্রদান করেন আদালত। দন্ডপ্রাপ্ত সুমন আলী চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার চৈতন্যপুর মিয়াপাড়া গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে। বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়ার পরও সাবেক স্ত্রী ফারজানা আখতার সীমাকে (২২) ছুরিকাঘাতে হত্যার দায়ে সেই সাথে তাকে মৃত্যুদন্ডসহ ১ লক্ষ টাকা অর্থদন্ডও প্রদান করা হয়। মামলার বিবরণ ও সরকারী কৌসুলী আঞ্জুমান আরা বেগম জানান, ২০১২ সালে শিবগঞ্জ উপজেলার চৈতন্যপুর বাজারপাড়া গ্রামের নুর আলম বাবুর মেয়ে ফারজানা আখতার সীমা (২২)’র সুমনের বিয়ে হয়। দম্পত্য জীবনে তাদের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। কিন্তু বিয়ের পর থেকে ¯^ামীর অত্যাচারের কারণে সীমা ¯^ামীর সাথে ২০১৫ সালে বিবাহ বিচ্ছেদ করে। কিন্তু সুমন সাবেক স্ত্রী সীমার কাছে থাকা সন্তানকে দেখার জন্য প্রায়ই সীমার পিতার বাড়ির আশপাশে ঘোরাঘুরি করত। এমনকি সে আড়াই বছরের সন্তানকে ছিনিয়ে নেবারও চেষ্টা করে। এনিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হলে সুমন সীমার পরিবারকে ‘দেখে নেবার’ হুমকিও দেয়। এরই জেরে গত ২০১৬ সালের ৭ অক্টোবর রাতে সুমন সীমাদের বাড়িতে প্রবেশ করে সীমা ও তার মা দেলুয়ারা বেগমকে ছুরিকাঘাত করে। তাকে বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে সে এই মামলার বাদী সীমার ছোট ভাই কামরুজ্জামানকেও (২২) ছুরিকাঘাত করে। ছুরিকাঘাতে ঘটনাস্থলেই সীমার মৃত্যু হয়। তার মা ও ভাইকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গ্রামবাসি ওই রাতেই সুমনকে আটকে পুলিশে দেয়। এ ঘটনায় ২০১৬ সালের ১০ অক্টোবর শিবগঞ্জ থানায় মামলা হয়। তদন্তকারী কর্মকর্তা ও শিবগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক সরোয়ার রহমান ২০১৭ সালের ৬ জানুয়ারী আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। ১১ জনের সাক্ষ্য ও প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত সোমবার দুপুরে আসামী সুমনের মৃত্যুদন্ডের রায় ঘোষণা করেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *