Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টাইনে ৩৭১ জন

\ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা প্রশাসনের

♦ স্টাফ রিপোর্টার 

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৩৭১ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। জেলায় হোম করেনটাইনে বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ছিলো ৩৬৬ জন। শুক্রবার সকালে তা বেড়ে ৩৭১ জন হয়। বর্তমানে জেলায় কোন করেনটাইন রোগী সনাক্ত হয়নি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে এবং প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ। এর মধ্য ২৯৯ জন ইটালি ফেরত। এ ছাড়াও কোরিয়া, ভারতসহ বিভিন্ন দেশ থেকে আসা যাত্রীও রয়েছে। কোরণা ভাইরাস প্রতিরোধে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে বিভিন্ন প্রতিরোধক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে ইতোমধ্যেই। গণজমায়েত, জালসা, কির্তন, বিয়ে, বৌ-ভাতসহ সকল জনসমাবেশ বন্ধ করা হয়েছে। করোনা প্রতিরোধে বিদেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের হোম করেনটাইনে রাখতে জেলায় ভ্রাম্যমান আদালতও চলমান রয়েছে। অমান্য করলে জরিমানাও করা হচ্ছে। জেলার সদর হাসপাতাল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বেসরকারী ক্লিনিক এবং বেশী রোগী হলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পিটিআই প্রশিক্ষন কেন্দ্রে আইসোলেসনে রাখার জন্য ব্যবস্থা, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করনীয় বিষয়ে মাইকিং, সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হচ্ছে। এব্যাপারে সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী জানান, বর্তমানে জেলায় কোন করেনটাইন রোগী সনাক্ত হয়নি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে এবং প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে জেলা প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে। জেলা ও উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটি সর্বক্ষন মনিটরিং করছেন। তিনি আরও বলেন, হোম করেনটাইন না মানায় জেলা বৃহস্পতিবার ৩জনকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। নিজের, পরিবারের, জেলার এবং দেশের কথা বিবেচনা করে বিদেশ ফেরত সকল যাত্রীদের স্বেচ্ছায় ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানান সিভিল সার্জন। এদিকে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে শুক্রবার মসজিদে মসজিদে জুম্মার নামাজের পর করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ এবং শহর পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে সকলকে সচেতন থাকার আহবান জানানো হয়।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *