Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার \ শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস যথাযথভাবে উদযাপনের লক্ষে প্রস্তুতি সভা হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল হাসান। বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এরশাদ হোসেন খান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান পিপিএম, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব রুহুল আমিন, এন.এস.আই’র উপ-পরিচালক মোঃ শামসুজ্জোহা, মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. আব্দুস সামাদ, স্বাধীন সাহিত্য পরিষদের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইব্রাহীম, সাধারণ সম্পাদক কবি এনামুল হক তুফান, জেলা তথ্য অফিসার ওয়াহেদুজ্জামান, পৌর কাউন্সিলর জিয়াউর রহমান আরমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও ‘দৈনিক চাঁপাই দর্পণ’ এর সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রঞ্জু, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মোখলেশুর রহমান, নবাবগঞ্জ সরকারী কলেজের শিক্ষক, মুক্তমহোদলের মুশফিকুর রহমান, গৌরি চন্দ সিতু, গ্রীণ ভিউ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রোকসানা আহমেদ, নবাবগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাসিনুর রহমানসহ অন্যরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ রহমতুল্লাহ, জেল সুপার শফিকুল ইসলাম, বিজিবি প্রতিনিধি, শিবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ড. মাওলানা মোঃ কেরামত আলী, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ আব্দুল লতিব, জেলা ক্রীড়া অফিসার আকতারুজ্জামান রেজা তালুকদার রুমী, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল ইসলাম, সাপ্তাহিক সোনামসজিদের সম্পাদক মোহাঃ জোনাব আলী, গৌড় বাংলা’র ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আজিজুর রহমান শিশির, শিবগঞ্জ উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ বরমান হোসেন, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সাহিদা আকতার, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগণ, মুত্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, শিক্ষকসহ বিভিন্ন সরকারী অফিস প্রধান উপস্থিত ছিলেন। সভায় দিবসটি পালনের জন্য সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন জেলা প্রশাসক। সভায় পূর্বের বছরগুলোতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা চত্বরে অবস্থিত শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণের সিদ্ধান্ত থাকলেও বর্তমানে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সরকারী কলেজ মাঠে নতুনভাবে নির্মিত শহীদ মিনারে জেলার কেন্দ্রীয় ভাবে এবছর পুস্পার্ঘ অর্পণ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় অধিকাংশ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের মতামতের ভিত্তিতে। তবে সকল শহীদ মিনারেই ইচ্ছে হলে যে কেউ পুস্পার্ঘ অর্পণ করতেও পারবে। সভায় পূর্ববর্তী বছরের মতো অন্যান্য কর্মসুচীগুলো সঠিকভাবে পালনেরও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। পরে একস্থানে অপর সভায় আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারী থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত গ্রীণভিউ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ডিজিটাল মেলা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এসময় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *