Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ওয়াহেদপুর সীমান্তের ওপারে ভারতীয় অংশ থেকে এক বাংলাদেশীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত বাংলাদেশী এসলাম আলী (৩০) শিবগঞ্জ উপজেলার দুর্লভপুর ইউনিয়নের ঘুঘুপাড়া গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে। ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের নির্যাতনে এসলামের মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করলেও তা অ¯^ীকার করেছে বিএসএফ। চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৯’বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল আবুল এহসান জানান, সোমবার সকাল ১০টার দিকে ওয়াহেদপুর সীমান্তের ১৩/২-এস পিলারের বিপরীতে ভারতের ৬’শ গজ অভ্যন্তরে নিহত এসলামের লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে খবর পেয়ে বিএসএফ চাঁদনীচক সীমান্ত ফাঁড়ির সদস্যরা মরদেহ উদ্ধার করে সে দেশের পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। তবে কিভাবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে তা জানা যায়নি। এঘটনায় বিকেল ৩টায় ওই সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে কোম্পানী কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে এসলামের লাশ সনাক্ত করা হয়। বৈঠকে বিএসএফ জানায়, রোববার রাতে ওই সীমান্তে তারা কোন অভিযান চালায়নি। ফলে বিএসএফের গুলিতে বা নির্যাতনে কেউ মারা যায়নি। লে. কর্ণেল আবুল এহসান জানান, ময়নাতদন্ত শেষে যতদ্রুত সম্ভব নিহত এসলামের মরদেহ ফেরত দেয়ার প্রতিশ্রæতি দিয়েছে বিএসএফ। তিনি আরো জানান, গত ৭ দিন থেকে এসলাম নিখোঁজ ছিলো বলে তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *