Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার চাঁপাই-আমনুরা রোডের বেহাল দশা। প্রায়শই ঘটছে যানবাহনের দূর্ঘটনা। বিপদে পড়ছেন যানবাহন মালিক, চালক ও শ্রমিকরা। রাস্তাটি দ্রæত সংস্কারের ব্যবস্থা করে যান চলাচলের উপযোগি করার দাবী জানিয়েছেন বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের মালিক ও কর্মকর্তারা। জানা গেছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার একটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা চাঁপাই-আমনুরা সড়ক। এই রাস্তায় রয়েছে জেলার শীর্ষ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো। রাস্তাটি দিয়ে জেলার অন্যান্য উপজেলায় যাতায়াত করে শত শত বিভিন্ন যানবাহন। এছাড়া জেলার গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক এলাকার শিল্প প্রতিষ্ঠানের পণ্য নিয়ে ট্রাকের দূর্ঘটনা ঘটছে। এই রাস্তা নির্মাণ কাজের অজুহাতে কোন সংস্কারই করছেনা কর্তৃপক্ষ। গত কয়েকদিনে বৃষ্টিতে নির্মাণাধিন কাজের বিভিন্নস্থানে শুধু বালি বা যৎসামান্য বালির সাথে ইটের খোয়া দিয়ে রোলার দিয়ে চেপে রাখা রাস্তার বিভিন্ন স্থানে ঘটছে দূর্ঘটনা। পণ্য বোঝায় ট্রাক পুতে গিয়ে চালক, শ্রমিক ও মালিকরা পড়ছেন বিপাকে। অনেক সময় এসব স্থানে পণ্য বোঝায় ট্রাক উল্টে যাওয়ার উপক্রমও হচ্ছে। এতে করে যানবাহনের যন্ত্রাংশের ক্ষতি হচ্ছে। এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করার সময় আতংকে থাকের চালক ও যাত্রীরা। যে কোন সময় দূর্ঘটনার আশংকায়। নির্মানাধিন কাজের মান নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন এলাকার শিল্প প্রতিষ্ঠানের মালিক, সাধারণ মানুষ। তাদের অভিযোগ রাস্তার নির্মাণ কাজ হচ্ছে, কিন্তু পুরাতন রাস্তার উপর কোনভাবে বালি আর সামান্য ইটের খোয়া মিশিয়ে রাস্তায় ফেলে রোলার দিয়ে চেপে দেয়া হচ্ছে। ঠিকাদারের লোকজন নিজেদের ইচ্ছামত কাজ করছেন। কেউ যেন দেখার নেই বা বলারও নেই। অথচ এই গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি সঠিকভাবে কাজ হওয়া প্রয়োজন। অন্যথায় ইতিপূর্বেও রাস্তা নির্মাণ বা সংস্কার কাজ হয়েছে, স্থায়ী হয়নি বেশীদিন। কিছুদিন যেতে না যেতেই আবারও একই অবস্থা, ভাঙ্গা-চোরা, খালে ভরা রাস্তায় পরিনত হয়। একই অবস্থা হওয়ার আশংকা করছেন স্থানীয়রা। রাস্তা নির্মাণ কাজের অযুহাতে রাস্তাটি এভাবে অবহেলায় না দেখে, যাত্রী সাধারণ, শিল্প কল-কারখানার মালিক, শ্রমিক ও চালকদের কথা বিবেচনায় এনে দ্রæত চলাচলের উপযোগী করার দাবী জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।
এব্যাপারে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আতিকুল্লাহ ভূইয়া জানান, চাঁপাই-আমনুরা রাস্তার নির্মাণ কাজ চলমান। রাস্তাটিতে কয়েকদিনের বৃষ্টিতে কিছুটা সমস্যা দেখা দিয়েছে। আসলে নির্মাণ কাজের জন্য যানচলাচল বন্ধ রেখে কাজ করা দরকার। কিন্তু শিল্প এলাকা এবং জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তার কারণে যানচলাচল বন্ধ রাখা সম্ভব হচ্ছে না। যান চলাচল বন্ধ রেখে কাজ করতে পারলে, নির্মাণ কাজ ভালোভাবে করা যায় এবং দ্রæতও হয়। তারপর নির্মানের কাজের জন্য অনেক সময় পানি ব্যবহার করতে গিয়ে রাস্তায় পানি গিয়ে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। কিছু কিছু জায়গায় রাস্তা সংস্কারও করা হয়েছে। আবহাওয়া ভালো হয়ে গেলেই এসব ছোটখাটো সমস্যাগুলো সমাধান হয়ে যাবে। নির্মান কাজের মানের বিষয়ে তিনি বলেন, কয়েকদিন আগে তিনি জেলায় যোগদান করেছেন এবং নির্মাণ কাজের মান যাচায় করা হয়েছে, তবে কাজের মান ভালো বলে মনে হয়েছে। কাজের মানের বিষয়ে কর্তৃপক্ষ সের্বাচ্চ সতর্ক দৃষ্টি রাখছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *