Sharing is caring!

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ প্রতিবছরের মত এবছরও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ পৌর এলাকার তর্ত্তিপুর শ্মশান ঘাটে মাকরী সপ্তমী মহাপূর্ণ স্নান উপলক্ষ্যে সনাতন ধর্মাম্মবলীদের গঙ্গাস্নান তথা দেশের বিভিন্নস্থানের মিলন মেলা হয়েছে। এ উপলক্ষে বুধবার ভোর থেকে স্থানীয় হিন্দু ভক্তদের তর্ত্তিপুর শ্মশান ঘাট এলাকায় একত্র হতে দেখা যায়। হিন্দুদের এ স্নানকে কেন্দ্র করে তর্ত্তিপুর ঘাট এলাকায় প্রতিবছরের মত এবছরও গড়ে উঠেছে বিভিন্ন জিনিষপত্রের মেলা। মেলা চলবে ৩ দিন। তবে এবছর প্রচন্ড শীতের কারনে পূণ্যার্থীর সংখ্যা কিছুটা কম এসেছে বলে ধারণা করছে স্থানীয়রা। তর্ত্তিপুর মেলা ও মহাশ্মশান কমিটির সহ-সভাপতি শ্রী প্রদীপ কুমার বড়গড়িয়া জানান, হিন্দু শাস্ত্র মতে ভগীরত গঙ্গা নদীর জল প্রবাহ নিয়ে বাংলাদেশে আশার সময় তর্ত্তিপুর ঘাট এলাকায় শ্মশানের পাশে পৌছালে নিম গাছের নীচে জাহ্নবীমনির আশ্রম থেকে তাদের দেবতা জাহ্নবীমনি গঙ্গার জল ভূলবশতঃ পান করে ফেলে। এতে ভগীরত ক্ষুব্ধ হলে জাহ্নবীমনি তার জান কেটে সেই জল বের করে দেয় এবং গঙ্গা মুক্ত হয়। সেই থেকে গঙ্গার এই জল প্রবাহ বলে হিন্দু ধর্মাম্মবলীরা বিশ্বাস করে। আর এই উপলক্ষে এই দিনে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পূর্ণ লাভের আশায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা জমায়েত হন এখানে। স্নান শেষে অধিকাংশ হিন্দুদের দই চিড়া ভোজ খেয়ে গঙ্গার জল সাথে নিয়ে নিজ নিজ বাড়ীতে ফিরে যান। মেলায় কির্তন, গীতা পাঠ ও ধর্ম সভা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *