Sharing is caring!

ঢাকা থেকে সরাসরি বাসে যাওয়া যাবে সিকিম

প্রকৃতি প্রেমীদের অন্যতম গন্তব্য স্থান হলো ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিম। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে ভূমি থেকে ১৪৩৭ মিটার উচ্চতায় হিম বরফে মোড়া সিকিমে প্রতি বছর লাখ লাখ দর্শনার্থী ভিড় জমান। ২০১৮ সাল পর্যন্ত সিকিমে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা ছিল বাংলাদেশি পর্যটকদের জন্য। কিন্তু এবার গ্যাংটকের দুয়ার বাংলাদেশের জন্য উন্মুক্ত করেছে ভারত।

নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার পর থেকেই সিকিমের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর হিমালয় পর্বতমালার সুউচ্চ শিখরগুলোর মাঝখানের মনোরম ও আরামদায়ক পরিবেশের খোঁজে ছুটে যাচ্ছেন বাংলাদেশের হাজারও ভ্রমণপিপাসু।

ভ্রমণ প্রেমীদের সিকিম যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে এবার ঢাকা থেকে সিকিম পর্যন্ত সরাসরি বাস চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকারি পরিবহন প্রতিষ্ঠান বিআরটিসি। সে লক্ষ্যে আসছে জুলাইয়ে ট্রায়াল রানে ঢাকা থেকে সিকিমে বাস ছাড়বে বিআরটিসি। এরপর বাস চালানোর উপযোগিতা যাচাই করবে বাংলাদেশ-ভারতের প্রতিনিধি দল।

সূত্র জানায়, বর্তমানে পাঁচটি রুটে বিআরটিসির ব্যানারে শ্যামলী পরিবহনের বাস ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে চলাচল করছে। এর মধ্যে হুন্দাই বাস ঢাকা-কলকাতা-ঢাকা, ঢাকা-শিলং-গৌহাটি ও কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা রুটে চলাচল করছে। এবার সেগুলোর সঙ্গে যোগ হবে আরও একটি রুট—সিকিম। বাংলাবান্ধা হয়ে শিলিগুড়ি দিয়ে সিকিম পৌঁছবে বাংলাদেশের বাস।

বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ জানায়, বাংলাদেশের পর্যটকদের জন্য সিকিম উন্মুক্ত হওয়ায় অনেকেই সেখানে বেড়াতে যাচ্ছেন। পর্যটকদের বিপুল আগ্রহ দেখেই নতুন এই আন্তর্জাতিক রুটে বিআরটিসি বাস চালু করতে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়, বিআরটিএ, সড়ক ও জনপথ বিভাগ এবং বাস অপারেটর প্রতিনিধি মিলিয়ে প্রায় ৫০ জনের একটি দল জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময়ে শ্যামলী এন আর ট্রাভেলসের একটি বাস নিয়ে সিকিম যাবে। আশা করা হচ্ছে, ঢাকা-সিকিম পথের দূরত্ব, নিরাপত্তা-ঝুঁকি ও যাত্রাপথের অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের ইতিবাচক সাড়া পেলেই বাসে করে অচিরেই সিকিম যেতে পারবেন বাংলাদেশের ভ্রমণপিপাসুরা।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *