Sharing is caring!

shibganj-pic-01শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এ.এইচ.এম খাইরুজ্জামান লিটন বলেছেন, দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যে সব নেতাকর্মীরা এখনো স্বতন্ত্র প্রার্থীদের হয়ে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা করছে, তাদের বিরুদ্ধে দলীয় সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি আরো বলেন, স্থানীয় সদস্য সদস্য ও উপজেলা শাখা আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম রাব্বানী দলীয় মনোনীত মেয়র প্রার্থী ময়েন খানকে সমর্থন না করে এবং সদ্য বহিষ্কৃত পৌর শাখা আওয়ামীলীগের ¯^তন্ত্র প্রার্থী কারিবুল হক রাজিনকে সমর্থন করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ অমান্য করছেন। আর বিরুদ্ধেও কেন্দ্রীয় কমিটি ব্যবস্থা গ্রহন করবে। রোববার বিকেল সাড়ে ৩ টার সময় উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি প্রয়াত আমিনুল ইসলাম খানের বাসভবনে পৌর নির্বাচনী মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ.এইচ.এম খাইরুজ্জামান লিটন এসব কথা বলেন। পৌর শাখা আওয়ামীলীগের সভাপতি আতিকুল ইসলাম টুটুল খানের সভাপতিত্বে এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর শাখা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, মাহফুজুর আলম লোটন, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল আলম পেন্টু, সদস্য রবিউল ইসলাম রকি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মঈনুদ্দিন মন্ডল, সহ-সভাপতি মির্জা শাহাদাৎ হোসেন খুররম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ময়েন খাঁন প্রমূখ। এর আগে স্থানীয় নেতাকর্মীদের অভিযোগ আমলে নিয়ে তাদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথি খাইরুজ্জামান লিটন  আরো বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ ইরতিজা আহসান, অফিসার ইনচার্জ এমএম ময়নুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন এবং দলীয় স্বার্থে আওয়ামীলীগের উপজেলা শাখা কমিটি খুব দ্রুত আহয়ক কমিটি গঠন করা হবে। যাতে দলের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি পায়। আওয়ামীলীগ নেতা লিটন সেলিমাবাদ খান পাড়া এলাকায় দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মতবিনিময় সভা করেন এবং পৌর এলাকার বিভিন্ন এলাকায় ময়েন খাঁনের পক্ষে ভোট চেয়ে গণসংযোগ করেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *