Sharing is caring!

দূর্ণীতির অভিযোগ তুলে বক্তব্য দেয়া
ভোলাহাট উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সভায় লাঞ্ছিত

♦ টুটুল রবিউল, (স্টাফ রিপোর্টার)

মাসিক সভায় দূর্ণীতির অভিযোগ তুলে বক্তব্য দেয়ায় ভোলাহাট উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানকে সভা চলাকালিন লাঞ্ছিত করেছে সভার সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন। তার সাথে যোগ দিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মশিউর রহমানও তাকে অকথ্য ভাষায় আক্রমণ করে কথা বলেছেন বলে অভিযোগ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহনাজ খাতুনের। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) সকাল ১০টায় ভোলাহাট উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত মাসিক সভায় তাকে লাঞ্ছিত করা হয় বলে জানান শাহনাজ খাতুন। এবিষয়ে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহনাজ খাতুন বলেন, উপজেলা মাসিক সভায় তিনি উপস্থিত হবার পর পরই উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা আগের কাবিটা প্রকল্পের সভার খাতায় স্বাক্ষর করতে বলেন। এসময় তিনি প্রকল্প কর্মকর্তাকে বলেন, সভা যেহেতু হয়নি, তাই তিনি স্বাক্ষর করবেন না। এরপর সভায় তার বক্তব্য প্রদানকালে তিনি উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের দূর্ণীতি আর অনিয়ম তুলে ধরেন।

ঠিক সেই সময় সভার সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ রাব্বুল হোসেন তাকে বক্তব্য বন্ধ করার নির্দেশ দেন। কিন্তু তিনি বক্তব্য চালিয়ে যেতে থাকলে তাকে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার অকথ্য ভাষায় আক্রমন করেন এবং বক্তব্য বন্ধ করতে বাধ্য করেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহনাজ খাতুন বলেন, ইউএনও’র যোগসাজসে উপজেলা চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন টিআর এবং কাবিটা প্রকল্পের টাকা হরিলুট করে খাচ্ছেন। একই জায়গা দেখিয়ে কয়েকবার প্রকল্পের টাকা উত্তোলন করা হয়েছে বলে জানান শাহনাজ। শাহনাজ খাতুন অভিযোগ করে বলেন, তিনি একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হওয়া সত্বেও উপজেলার সভাসহ অন্যান্য বিষয়ে তাকে কিছু জানানো হয়না। এমনকি, বিভিন্ন প্রকল্পের অনুদানের টাকা/ত্রাণ বিতরণ না করে পকেটস্থ করছে উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাহী অফিসার। এসকল বিষয়ে কথা বলতে চাইলে, এর আগেও তাকে বাধা দেয়া হয়েছে। তাকে লাঞ্ছিত করা এবং বিভিন্ন দপ্তরের দূর্ণীতি নিয়ে তিনি জেলার স্থানীয় সরকার বিভাগে লিখিত অভিযোগ করবেন বলেও জানিয়েছেন। এবিষয়ে ভোলাহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রাব্বুল হোসেনকে বেশ কয়েকবার মোবাইল করা হলেও তিনি মোবাইল রিসিভ করেননি। তবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মশিউর রহমান মুঠোফোনে বলেন, এবিষয়ে তাঁর কোন বক্তব্য নেই।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *