Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১২টি মডেল ফার্মেসীর উদ্বোধন

নকল-ভেজাল ও মেয়াদউত্তীর্ণ ঔষধ বন্ধে

জিরো টলারেন্স: মেজর জে. মাহবুবুর রহমান

♦ স্টাফ রিপোর্টার

সকল প্রকার নকল, ভেজাল ও মেয়াদউত্তীর্ণ ঔষধ বন্ধে আমাদের অবস্থান জিরো টলারেন্স। মহামান্য আদালতের নির্দেশনা আছে এক মাসের মধ্যে বাজারে থাকা সমস্ত নকল, ভেজাল ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ বাজার থেকে অপসারণ করতে হবে। যার মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ২ জুলাই মঙ্গলবার। গত ৬ মাসে এবিষয়ে ৪’শ ৪টি মামলা এবং ৮১ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। শুক্রবার চাঁপাইনবাবগঞ্জে আধুনিক সুবিধা সম্পূর্ণ অত্যাধুনিক ১২টি মডেল ফার্মেসীর উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ঔষধ প্রশাসন অধিপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ফার্মেসীতে কোন ঔষুধের মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে, তা সেল্ফে রাখা যাবে না এবং সেগুলো নিদিষ্ট স্থানে পৃথক একটি পাত্রে রাখতে হবে। আগামী ২ জুলাইয়ের মধ্যে সেগুলো সংশ্লিষ্ট কোম্পানীর নিকট ফেরত দিতে হবে এবং ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে তা ধ্বংস করা হবে। বাংলাদেশ এই মূহুর্তে দেশের চাহিদার ৯৮ শতাংশ ঔষুধ উৎপাদন এবং ১৪৬টি দেশে ঔষধ রপ্তানি করছে। বাংলাদেশে মানসম্মত ঔষুধ উৎপাদন হলেও এর বিপনণ ব্যবস্থা মানসম্মত নয় বলে মন্তব্য করেন ঔষুুধ প্রশাসন অধিপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান। এসময় তিনি বলেন, একটি ঔষুধ উৎপাদনের পর বিভিন্ন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ফার্মেসীতে আসার পর তা ক্রেতার নিকট কিভাবে যাবে সেটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দেশে বর্তমানে ১ লক্ষ ৩০ হাজার ফার্মেসী রয়েছে এবং এগুলো যাতে মান সম্মত হয় সে বিষয়ে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছি। ইতোমধ্যে ৫’শতাধিক মডেল ফার্মেসী এবং ১৯ হাজার ফার্মেসীকে মডেল মেডিসিন শপ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। মডেল ফার্মেসী সম্পর্কে তিনি জানান, এখানে গ্রাজুয়েশন শেষ করা একজন ফার্মাসিষ্ট থাকবে এবং একটি কর্নার থাকবে যেখানে ব্লাড সুগার, প্রেসার মাপা যাবে। এটি ৩’শ স্কয়ার ফিটের বেশি ও ঔষুধের গুনগতমান ঠিক রাখতে রেফ্রিজারেটর থাকবে। সর্বোপরী ঔষধের ব্যাপারে রোগীকে সঠিক পরামর্শ, খাওয়ার সময় ও নিদিষ্ট ঔষধে কোন পার্শ¦প্রতিক্রিয়া রয়েছে কি না তা ভালোভাবে বুঝিয়ে দিবেন মডেল ফার্মেসীতে কর্মরত সংশ্লিষ্টরা। মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান আরও বলেন, পর্যায়ক্রমে দেশের ১ লক্ষ ৩০ হাজার ফার্মেসীর মধ্য থেকে বাছাই করে সেগুলোকে মডেল ফার্মেসী হিসেবে উদ্বোধন করা হবে। এলক্ষ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার রাজশাহীতে বেশ কয়েকটি মডেল ফার্মেসীর উদ্বোধন করা হয়েছে এবং শনিবার নাটোরেও উদ্বোধন করা হবে। উিদ্বোধন শেষে জেলা শহরের নবাবগঞ্জ ক্লাব মিলনায়তনে নকল, ভেজাল ও মেয়াদ উত্তীর্ন ঔষুধ প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ঔষুুধ প্রশাসন অধিপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) মো. রুহুল আমিন, বাংলাদেশ কেমিষ্ট এ্যান্ড ড্রাগিষ্ট সমিতির রাজশাহী শাখার সহ-সভাপতি ও বিসিডিএস কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদের সহ-সভাপতি এইচ.এম. শাহাদাৎ হোসেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ঔষুধ প্রশাসন কর্মকর্তা আব্দুল মালেক। ঔষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর ও বাংলাদেশ কেমিষ্ট এ্যান্ড ড্রাগিষ্ট সমিতি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার আয়োজনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন, সমিতির রাজশাহী শাখার সভাপতি মো. জিয়াউল হক।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *