Sharing is caring!

নাচোলে আকু নামের একজনের বিরুদ্ধে মাদকসহ অ-সামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগ!

♦ সাকিল রেজা, নাচোল থেকে

নাচোলের সোনাইচন্ডীতে অ-সামাজিক কার্যকলাপ ও মাদক বিক্রির অভিযোগ উঠেছে রেজাউল করিম আকু নামের এক ব্যাক্তির বিরুদ্ধে। তার বাড়ি নাচোল উপজেলার সোনাই›চী বাজারে, সে ঝড়ু মন্ডলের ছেলে। বর্তমানে সে ২য় স্ত্রীকে নিয়ে সংসার করলেও মাদক ও ভাড়া করা পতিতা নিয়ে এসে অ-সামাজিক কার্যকলাপ ”লাচ্ছেন তার নিজ বাড়িতে। এ বিষয়ে সম্প্রতি নাচোল থানায় একটি অভিযোগ করেছেন ওই এলাকার এক স্কুল শিক্ষক। তবে এ অভিযোগ অ-স্বীকার করেছেন রেজাউল করিম আকু। সোনাইচন্ডী হাট এলাকার স্থানীয় ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধি ও বাজার পাহারাদারসহ বেশকিছু ব্যক্তি অভিযোগ করে জানান, সোনাইচন্ডী বাজারের পূর্ব দিকে রেজাউল করিম আকু সরকারী একটি খাস পুকুর পাড়ে বেশ ক’বছর ধরে বসবাস করছেন। ধান ব্যবসার আড়ালে মাদক বিক্রি ও ভ্রাম্যমান পতিতা নিয়ে এসে নিজ বাড়িতে রাতের বেলায় অ-সামাজিক কাজ করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। আকু তার নিজ বাড়িতে ২য় স্ত্রী রোজীকে নিয়েই বসবাস করছেন বলে স্থানীয়রা এ অভিযোগ করেন। তার ২য় স্ত্রী ইতোপূর্বে ছিলেন তোহরুল ইসলাম নামের এক বিজিবি সদস্যের স্ত্রী। আকু পরকীয়ার প্রেমে ফেলে ওই বিজিবি’র সদস্যের স্ত্রী রোজী বেগমকে ৫ বছর পূর্বে বিয়ে করেন। বর্তমানে সে ধানের ব্যবসার আড়ালে চালাচ্ছেন অবৈধ মাদক বিক্রি ও পতিতাদের নিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপ। ফলে উঠতি বয়সের যুবকরা গভীর রাতে আকু’র বাড়িতে ভীড় জমাচ্ছেন। গভীর রাতে পতিতাদের নিয়ে এসে রমরমা ব্যবসা করছেন বলে স্থানীয় ব্যবসায়ী ও সোনাইচন্ডী বাজারের রাত্রী পাহারাদার জানান। সম্প্রতি রহনপুর এলাকার এক পতিতা গভীর রাতে আকুর বাড়িতে অবস্থান করাকালে রাত্রী পাহারাদারের হাতে নাতে ধরা পড়েন (এ বিষয়ে একটি ভিডিও প্রদান করেছেন স্থানীয়রা এ প্রতিবেদকের কাছে)। পরে ওই রাতেই স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ এর মাধ্যমে ওই পতিতাকে রহনপুর পৌছে দেয়া হয় বলে জানান। সোনাইচন্ডীহাট এলাকার এক স্কুল শিক্ষকের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিষয়টি আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে নাচোল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সেলিম জানান। তিনি জানিয়েছেন মাদক বিক্রি ও অসামাজিক কার্যকলাপ এ উপজেলায় থাকবেনা, এগুলি বন্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *