Sharing is caring!

নাচোল প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে ডিবি পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন আওয়ামীলীগের নতুন সদস্য ও সাবেক ছাত্র শিবিরের সদস্য এ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান বুলেট। বৃহস্পতিবার রাতে নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় গোয়েন্দা বিভাগের জেলা কর্মকর্তারা। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান বুলেট ১৯৯৯-৯৮সালে ছাত্র শিবিরের তুখোড় একজন কর্মী ছিলেন। সেই সময়ে আওয়ামীলীগের যুবলীগের বর্তমান উপজেলা সভাপতি ও ভাইস চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমানের মিছিলে অতর্কিত হামলা চালায়। সেই হামলায় আওয়ামীলীগের অনেক ত্যাগী কর্মী আহত হয়েছিল। ২০১০সাল থেকে ২০১৪সাল পর্যন্ত মোস্তাফিজুর রহমান বিএনপির মাঠে সক্রিয় কর্মী হিসাবে নিয়োজিত হন। কিন্তু সম্প্রতি বর্তমান সরকার জামাত শিবিরকে জঙ্গি দল হিসাবে ঘোষণা দিলে এবং বিভিন্ন মামলার আসামী হিসেবে আইন শৃক্সখলাবাহিনী সদস্যরা জামাত শিবিরের সদস্যদের গ্রেফতার শুরু করেন। সেই গ্রেফতার এড়াতে কি তিনি আবার আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত হন? এমন প্রশ্নের জবাব মিলল, ২০১৫সালে আওয়ামীলীগের সক্রিয় কর্মী হিসাবে যোগদানের মাধ্যমে। মোস্তাফিজুর রহমান বুলেট ২০১৫সালে ক্ষমতাসীন সরকারের নাচোল আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে প্রবেশ করার সাথে সাথে হয়ে উঠলেন একজন আওয়ামীলীগের সক্রিয় কর্মী। নাচোল উপজেলা আওয়ামীলীগের মাঠ পর্যায়ের প্রতিটি কর্মীদের সাথে গড়ে তুলেছেন তাঁর এক শক্ত অবস্থান। এমন কি উপজেলা আওয়ামীলীগের সকল নেতা থেকে শুরু করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২আসনের সাংসদ সদস্য জনাব গোলাম মোস্তাফা বিশ্বাসের সাথেও বিভিন্ন মিটিং ও মিছিলে ছিলো তাঁর উপস্থিতি। কিন্তু কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই বৃহস্পতিবার রাতে মোস্তাফিজুর রহমানের হাতে পড়ল হাতকড়া। পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনারুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, মোস্তাফিজুর রহমান অভ্যন্তরীণ কোন কারনে গ্রেফতার হতে পারেন। এ বিষয়ে নাচোল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফাছির উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান ,নাচোল থানায় ২১/০৭/২০১৫ইং দ্বায়েরকৃত মামলা নং-০৩ এ নাশকতার অভিযোগে আইনজিবী মোস্তাফিজুর রহমান বুলেটকে আটক দেখানো হয়েছে বলে জানান।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *