Sharing is caring!

নাচোল প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জে’র নাচোলে ১টি সরকারী খাস পুকুর দখলকে কেন্দ্র করে ২ পক্ষের মধ্যে চরম দ্ব›দ্ব চলছে। ঘটে যেতে পারে যে কোন সময় সংঘর্ষ। জানা গেছে, নাচোল উপজেলার নেজামপুর ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর মৌজার হাল ২০৪ নং পুকুরটির আয়তন প্রায় ১ একর। পুকুরটি গত ৩ বছর পূর্বে গ্রামের মসজিদ পক্ষ, পুকুর পাড়ে বসবাসকারী ও পার্শ্ববর্তী কামার জগদইল গ্রামের আলহাজ্ব মুন্তাজ আলীর ছেলে মাহিদুর রহমান পুকুরটি ভোগদখল করে আসছিলো। সরকারীভাবে কোন লীজ গ্রহণ না করেও মোট তিন ভাগে পুকুরটি দখল করে আসছিলো। গত ২০১২ সাল থেকে পুকুরটি গ্রামের জামে মসজিদ এর উন্নতি কল্পে মসজিদ কমিটি ভোগ দখল করে মসজিদের ব্যাপক উন্নয়ন করে। চলতি বছরে পুকুর পাড়ে বসবাস কারী ১৩টি পরিবারের মধ্যে ৮টি পরিবার পুকুরটি দখলে নেয়ার চেষ্টা করলে মসজিদ কমিটি বাধা দেয়, ফলে হট্টোগোলের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি নিয়ে মসজিদ পক্ষ ও পুকুর পাড়ে বসবাসকারীরা উভয়ে সরকার দলীয় এমপি ও উপজেলা চেয়ারম্যানদের আশ্রয় নেয়। কিন্তু দীর্ঘ চেষ্টার পরেও সমস্যাটি সমাধান হয়নি। অপর দিকে বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান আব্দুল আওয়াল চেষ্টা করেও সম্পুর্ন ব্যর্থ হয়েছেন। পুকুরকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে মর্মে নাচোল থানা পুলিশ অবশেষে হস্তক্ষেপ করেও কোন ফল হয়নি। শেষে নাচোল থানা পুলিশ সংঘাত এড়াতে দু’পক্ষকে পুকুরে না যাওয়ার নির্দেশ দেন। কিন্তু উভয়পক্ষই পুলিশ’র এ সিদ্ধান্তকে অমান্য করে পুকুরে মাছ ছেড়েছেন। এলাকাবাসীর ধারনা, সরকারী খাস পুকুর দখলকে কেন্দ্র করে এলাকায় যে কোন সময় সংঘর্ষ ঘটে যেতে পারে। এব্যাপারে নাচোল উপজেলা ভুমি অফিসের সহকারী কমিশনার সরকার অসীম কুমার এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, পুকুরটি কোন পক্ষই লীজ গ্রহন না করে অবৈধ ভাবে দখল করার চেষ্টা করছে বলে শুনেছি। পুকুরটির ব্যাপারে খুব শ্রীঘ্রই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *