Sharing is caring!

IMG_20151103_153713নাচোল প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার মধ্যে যত গুলো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে তার মধ্যে সব চেয়ে জরাজির্ণ বিদ্যালয় হচ্ছে সোগুনা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়টিতে মাত্র ২জন শিক্ষক দিয়ে দায়সারাভাবে চালানো হচ্ছে বিদ্যালয়ের লেখাপড়া। ক্ষতি হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বিদ্যালয়টি ১৯০৫ সালে স্থাপিত হওয়ার পর থেকে মাত্র ২জন শিক্ষক দিয়ে কোমলমতি শিশুদের লেখাপড়া করানো হচ্ছে। যা জেলার মধ্যে কোথাও এমন নজির নেই। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তাহেরুল ইসলাম জানান, বিদ্যালয়টিতে মোট ১২৭ জন ছাত্র -ছাত্রী রয়েছে। এই ১২৭ জন ছাত্র-ছাত্রীদের মাত্র দুইজন শিক্ষক দিয়ে লেখাপড়া করানো হচ্ছে। যার কারনে কোমলমতি শিশুদের লেখাপড়া বিঘিœত হচ্ছে। বিদ্যালয়টিতে শিশু শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেনী পর্যন্ত লেখাপড়া করা হয়। বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জোহরুল ইসলাম জানান, আমরা দুইজন শিক্ষক প্রতিটি শ্রেণীর ডাবল ক্লাস নিই, তারপরও আমাদের শিক্ষকের সংকটের কারনে সব গুলো শ্রেণীর ক্লাস নিতে হিমশিম খেতে হয়। ঐ বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী মোসা:সানজিদা, সাজিয়া আরেফিন জানান, বিদ্যালয়ে মাত্র দুইজন শিক্ষক দিয়ে লেখাপড়া করানো হচ্ছে। শিক্ষক সংকটের কারনে আমাদেরকে ভালভাবে লেখাপড়া করাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। তাই ঐ বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিশুদের দাবী অচিরেই বিদ্যালয়টিতে শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে উধ্বতর্ন কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেবেন। বিদ্যালয়ের সভাপতি বীরেন্দ্র নাথ মাহাতো জানান, শিক্ষক সংকটের বিষয়টি এমপি মহোদয়ের নিকট জানানো হয়েছে। উপজেলা শিক্ষা অফিসার ফজলুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, উপজেলার পশ্চিম মির্জাপুর এলাকার সোগুনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টিতে অনেক দিন থেকেই শিক্ষকের সংকট রয়েছে। বিদ্যালয়টিতে একজন শিক্ষাক নিয়োগের জন্য শিক্ষা অধিদপ্তরে ডেপুটেশনের জন্য আবেদন পাঠানো হয়েছে। খুব শীঘ্রই শি¶ক সংকটের বিষয়টি দূর হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *