Sharing is caring!

নাচোলে অখ্যাত পত্রিকার কুখ্যাত সাংবাদিকের কান্ড-

পত্রিকার মালিক সেজে মোটরসাইকেলে স্টিকার লাগিয়ে

ঘুরছেন স্কুল শিক্ষক মালেক

♦ নাচোল থেকে শাকিল রেজা

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে এক স্কুল শিক্ষক পত্রিকার মালিক দাবী করে তাঁর নিজ মোটরসাইকেলে “প্রেস” লেখা স্টিকার লাগিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এলাইপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মালেক দাবী করেন, “দৈনিক জরুরী সংবাদ” নামের একটি দৈনিক সংবাদপত্রের প্রিন্ট ও অনলাইন ভার্সন প্রকাশ হচ্ছে। ওই পত্রিকার মালিকানা অংশিদার বলে শিক্ষক আব্দুল মালেক দাবী করেছেন। বেশ কিছুদিন যাবৎ নাচোলে থানার দালাল ও কিছু ভুঁইফোঁড় সাংবাদিকের উৎপাত বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে পেশাদার সাংবাদিকেরা বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছেন। রাতারাতি অখ্যাত দৈনিক ও অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিক ও ফেসবুক কর্মীরা সরকারী-বেসরকারী অনুষ্ঠানে মোবাইলে ছবি তোলার প্রতিযোগিতায় মেতে উঠেন। নাচোলে নেতাকে খুশি করার প্রতিযোগিতা চলছে “সাংবাদিক” নামের ফড়িয়াদের। অখ্যাত পত্রিকার সাংবাদিকদের কু-কর্মের জন্য নাচোলের দূর্ণীতিবাজরা সাংবাদিকদেরকে “সাংঘাতিক” বলে সম্বোধন করে তাদের দূস্কর্ম ঢাকার চেষ্টা করছেন। অনেক নেতা তাঁর পোষ্য সাংবাদিক রেখে প্রিন্ট ও ডজন খানেক অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ ছাপিয়ে বাহŸা কুড়াচ্ছেন। চুনোপুঁটি নেতাতে হাওয়া মেরে জাতীয় নেতা বানিয়ে দিচ্ছে ওইসব সাংঘাতিক মার্কা কথিত সাংবাদিকরা। নাচোলে রাজনৈতিক দলের নেতারা তাঁদের মেয়াদকালে তাঁর কু-কর্ম ঢেকে রেখে শুধু লোক দেখানো কাজের হাওয়া মেরে খবর প্রচার করার জন্য নিজ বলয়ের কথিক(পোষ্য) সাংবাদিক তৈরী করেছেন। এর কু-প্রভাব পড়েছে প্রকৃত পেশাদার সংবাদিকদের ঘাড়ে। এদিকে “দৈনিক জরুরী সংবাদ” নামের দৈনিকটির স্টিকার মোটর সাইকেলের সামনে লাগানোর বিষয়ে শিক্ষক আব্দুল মালেক ওই পত্রিকার মালিকানা অংশিদার বলে দাবী করেছেন। তবে গুগলে সার্চ করে দেখা গেছে ওই পত্রিকার নামে অনলাইন ভার্ষণ চালু নাই। অন্যদিকে “দৈনিক ডোনেট বাংলাদেশ” পত্রিকার প্রতিনিধি দাবিদার আবুল কালাম আজাদ নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে নাচোল থানায় মামলার তদবিরে ব্যাস্ত থাকেন। তবে দু’লাইন সংবাদ লেখার কোন যোগ্যতা তাঁর নেই। মাঝেমধ্যে তিনি কিছু সংবাদ পাঠান বলে তিনি দাবী করেন, ডোনেট বাংলাদেশের আরো একজন রয়েছেন জমির উদ্দীন, তিনিও রম্টর সাইকেলে ডোনেট বাংলাদেশে স্টিকার লাগিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এসব স্টিকার সর্বস্ব সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে প্রসাশনের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন সচেতন মহল।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *